স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের ডাক পাননি বলে দাবি করেছিল জুনিয়র ডাক্তাররা৷ ফলে নবান্ন সভাগৃহে আজ বিকেলে স্বাস্থ্য জটিলতা দূরীকরণ বৈঠক ঘিরে জটিলতা তৈরি হয়৷ তবে, সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী এনআরএস কর্তৃপক্ষ ও রাজ্য সরকার৷

আন্দোলনকারীদের দাবির পরই এনআরএস হাসপাতালের তরফে রাজ্যের স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তাকে সম্পূর্ণ বিষয়টি জানানো হয়৷ তারপরই স্বাস্থ্য দফতরের তরফে আমন্ত্রণ পত্র তৈরির কাজ শুরু হয়৷ ইতিমধ্যেই মধ্যেই তা জুনিয়র ডাক্তারদের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন রাজ্যের স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা৷ চিঠিতে নিরাপত্তা সংক্রান্ত ডাক্তারদের সব দাবিই মেনে নিয়েছে সরকার৷ সংবাদ মাধ্যমের বিষয়টির কোনও উল্লেখ নেই তাতে৷

আরও পড়ুন: নবান্নে বৈঠক ঘিরে জটিলতা, ডাক পাননি বলে দাবি জুনিয়র ডাক্তারদের

রবিবারই জানা যায়, স্বাস্থ্য পরিষেবা স্বাভাবিক করতে সোমবার বিকেল তিনটে নবান্ন সভাগৃহে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন জুনিয়র ডাক্তাররা৷ তবে এদিন সকালে আন্দোলনকারিরা দাবি করেন, বৈঠকের জন্য ডাক পাননি তারা৷ কবে, কোথায় বৈঠক তা জানেন না৷ দাবি এনআরএসের জুনিয়র ডাক্তারদের৷ ডাক পেলে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে কোনও বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা৷ তবে, সংবাদ মাধ্যমের সামনেই হতে হবে আলোচনা৷

জুনিয়র ডাক্তাররা জটিলতা কাটিয়ে কাজে ফিরতে আগ্রহী বলে দাবি তাদের৷ রাজি মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনাতেও৷ তবে, বৈঠকে রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের কাছে ছয়’টি দাবি তুলে ধরতে চান তারা৷ যেমন, এনআরএসের আক্রান্ত জুনিয়র ডাক্তার পরিবহ মুখোপাধ্যায়কে হাসপাতালে দেখতে যেতে হবে মুখ্যমন্ত্রীকে৷

এনআরএস সহ মালদা ও মুর্শিদাবাদ হাসপাতালে হামলাকারীদের নাম প্রকাশ্যে আনতে হবে৷ হাসপাতালের ডাক্তারদের উপর হামলা ঠেকাতে প্রশাসন কী পদক্ষেপ করেছে তা লিখিতভাবে জানাতে হবে৷ রাজ্যের হাসপাতালগুলির পরিকাঠামোর উন্ননে আলাদা কমিটি গড়তে হবে সরকারকে৷ এই কমিটিতে থাকবেন অভিজ্ঞ চিকিৎসকরা৷ হাসপাতালের নিরাপত্তায় বিশেষ বাহিনী রাখতে হবে৷

আরও পড়ুন: এনআরএস কাণ্ডের জের, দেশজুড়ে ব্যাহত চিকিৎসা পরিষেবা

রাজ্য সরকারের তরফে বৈঠকের ডাক পেলে কারা কারা উপস্থিত থাকবেন জুনিয়র ডাক্তারদের প্রতিনিধি হিসাবে তা নিয়েই সোমবার সকালে বৈঠকে বসেছেন জুনিয়র ডাক্তাররা৷ এনআরএসের জরুরি বিভাগ খোলা থাকলেও বন্ধ আউটডোর৷ ফলে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসা পরিষেবা৷

আমন্ত্রণ পত্র পেলেও সংবাদ মাধ্যমের উপস্থিতে বৈঠকে রাজি নয় রাজ্য প্রশাসন৷ অথচ ওই দাবিতে অনড়া তারা৷ সেই দাবি ঘিরেই আপাতত বাড়ছে জট৷