ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: চেন টেনে ট্রেন থামিয়ে সেই ট্রেন থেকে নেমে পড়েও শেষ রক্ষা হলোনা। কর্তব্যরত আরপিএফ কর্মীদের নজরে পড়ে যাওয়ায় আটকে থাকতে হল স্টেশনেই। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাঁকুড়া স্টেশনের ঘটনা।

এদিন কাটিয়াম থেকে মালদা টাউনগামী শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেনটি বাঁকুড়া স্টেশনের উপর দিয়ে যাচ্ছিল। ওই ট্রেনটির বর্ধমানের উপর দিয়ে যাওয়ার কথা থাকলেও কোনও কারণে সেই রুট পরিবর্তন করে বাঁকুড়ার উপর দিয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় রেল কর্তৃপক্ষ। আর এই সুযোগটাকেই কাজে লাগিয়ে বাঁকুড়া স্টেশনে ট্রেন ঢোকা মাত্রই চেন টেনে ট্রেন থামা মাত্রই ইন্দাস, পাত্রসায়র, বিষ্ণুপুর ও পশ্চিম বর্ধমানের এলাকার ৫৮ জন যাত্রী নেমে পড়েন।

বিষয়টি কর্তব্যরত আরপিএফ কর্মীদের নজরে আসায় তাদের প্রত্যেকেই আটক করেন তারা। রেল কর্তৃপক্ষের তরফে ওই ৫৮ জন যাত্রীকে স্থানীয় পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। কেন তাঁরা এমন করলেন এ বিষয়েও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I