স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: টালা ব্রিজ বন্ধের জেরে একাধিক বাস রুট পরিবর্তন করা হয়েছে। কলকাতা থেকে শহরতলির যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত করতে ফেরি পরিষেবা চালুর পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার।কয়েক মাস আগে বরানগর থেকে বাবুঘাট পর্যন্ত একটি নতুন ফেরিঘাটের উদ্বোধন করেছেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। এবার কলকাতা-বারাকপুর ফেরি পরিষেবা চালুর পরিকল্পনা নিল ভূতল পরিবহণ দফতর। খুব শীঘ্রই এই পরিষেবা চালু হবে বলে জানিয়েছেন দফতরের কর্তারা৷

জানা গিয়েছে, নতুন ফেরি পরিষেবা চলবে বারাকপুর থেকে কলকাতা পর্যন্ত। বারাকপুর, টিটাগড়, খড়দহ, পানিহাটি, আগরপাড়া, বরানগর হয়ে কলকাতার বিভিন্ন ঘাটে পৌঁছবে লঞ্চ। ওই দিক থেকেও লঞ্চ আসবে বারাকপুরে। প্রতিটি লঞ্চ থাকবে বড় আকারের। যাতে বেশি সংখ্যক যাত্রী যাতায়াত করতে পারেন। ফেরি পরিষেবার জন্য প্রতিটি ঘাটে জেটিগুলি সংস্কার করা হবে।

বারাকপুর থেকে শিয়ালদহ যাতায়াতে নিত্যযাত্রীদের কাছে ভোগান্তির শেষ নেই। বিশেষ করে অফিসটাইমে বাদুড়ঝোলা হয়ে যাতায়াত করতে হয়। ট্রেনের নিত্যযাত্রীরা জানান, এতই ভিড় থাকে যে, ছোট বাচ্চা, মহিলাদের নিয়ে ট্রেনে ওঠা যায় না। জলপথে ফেরি পরিষেবা চালু হলে ট্রেনের উপর চাপ কমবে।

পানিহাটির বিধায়ক তথা বিধানসভার মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ বলেন, বারাকপুর কলকাতা ফেরি পরিষেবা বিধানসভায় ঘোষিত হয়ে গিয়েছে। বেশি সংখ্যক যাত্রী যাতায়াত করতে পারবে, এমন লঞ্চ দেওয়া হবে। এই ফেরি পরিষেবা চালু হলে কলকাতার সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও উন্নত হবে।