পানাজি: ‘এখানকার রেফারিংয়ের মান কী সেটা সবাই জানে।’ মুম্বই সিটি এফসি’র বিরুদ্ধে শেষ মুহূর্তের পেনাল্টি গোলে হেরে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন এফসি গোয়া কোচ জুয়ান ফেরান্দো। ম্যাচ হারের পর দলের ফুটবলারদের পারফরম্যান্সকে সাধুবাদ জানিয়েছেন স্প্যানিশ কোচ। উল্লেখ্য, মুম্বই সিটি এফসি’র বিরুদ্ধে বুধবার ম্যাচের সংযুক্তি সময়ে পেনাল্টি হজম করে দশজনের গোয়া। স্পটকিক থেকে গোল করে মুম্বইকে জয় এনে দেন অ্যাডাম লে ফন্ড্রে।

বিরতির পাঁচ মিনিট আগে হার্নান সান্তানাকে হাই-ফুট ট্যাকল করে লাল কার্ড দেখে এফসি গোয়ার হয়ে অভিষেকে মাঠের বাইরে চলে যেতে হয় রিদিম তালাংকে। রেফারির লাল কার্ড দেখানোর এই সিদ্ধান্ত নিয়ে বিশেষ কিছু বলতে চাননি গোয়া কোচ। তিনি ক্ষোভের সুরে কেবল এটুকু বলেন যে, ‘আমার মনে হয় রেফারির সিদ্ধান্ত নিয়ে কিছু না বলাই ভালো। কারণ এখানে রেফারিংয়ের মান সম্পর্কে সবাই ওয়াকিবহাল।’ দলের ছেলেদের পারফরম্যান্সের প্রশংসা করে ফেরান্দো জানিয়েছেন, ‘যা হয়েছে সেটা ভালো হয়নি। কিন্তু সত্যি বলতে ছেলেরা মাঠে অনেক পরিশ্রম করেছে। শেষে গিয়ে আমরা ম্যাচটা হারেছি। আপাতত পরবর্তী ম্যাচে নজর আমাদের।’

স্প্যানিশ কোচ জানিয়েছেন ৪০ মিনিটে দশজনে হয়ে যাওয়ার পর তাঁর কাছে কোনও বিকল্প ছিল না। স্বাভাবিকভাবেই দলকে কিছুটা গুটিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। ফেরান্দোর কথায়, ‘মুম্বইয়ের মত শক্তিশালী দলের বিরুদ্ধে দশজনে লড়াই দেওয়াটা মুখের কথা নয়। লাল কার্ডের আগে দু’টো দলই সুন্দর ফুটবল উপহার দেওয়ার চেষ্টা করছিল। কিন্তু লাল কার্ডের পর প্ল্যান ‘বি’তে যাওয়া ছাড়া কোনও উপায় ছিল না। প্ল্যান ‘বি’ একটা সময় অবধি কাজে দিয়েছিল। কিন্তু দশজনে খেলাটা ভীষণই কঠিন।’

দু’ম্যাচ খেলা হয়ে গেলেও জয় এল না এখনও। শুরুটা প্রত্যাশামতো না হলেও দল আগামী ম্যাচগুলোতে জয়ের জন্য পরিশ্রম করে যাবে, জানালেন ফেরান্দো। স্প্যানিশ কোচের কথায়, ‘ফলাফল মোটেই ভালো নয়। আমরা প্রত্যেক ম্যাচে জয়ের মানসিকতা নিয়েই মাঠে নামি। কিন্তু সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল পরিশ্রম চালিয়ে যেতে হবে।’

উলটোদিকে নর্থ-ইস্টের কাছে হারের পর দ্বিতীয় ম্যাচে জয় পেয়ে খুশি মুম্বই কোচ সার্জিও লোবেরা। কঙ্কন ডার্বি জয়ের পর তিনি জানিয়েছেন, ‘সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল আমরা সুযোগ তৈরি করেছি। আমি দলের খেলায় খুশি। আমার মনে হয় পরিবর্তগুলো কাজে দিয়েছে। বেঞ্চ থেকে মাঠে নামা ফুটবলারদের মনোবল দারুণ ছিল। আমরাই ম্যাচে আধিপত্য দেখিয়েছি। ভালো ফুটবল খেলেছি, সুযোগ তৈরি করেছি এবং শেষে গিয়ে গোল করেছি।’

উল্লেখ্য, ম্যাচের সংযুক্তি সময় বক্সের মধ্যে লেনি রডরিগেজ হাতে বল লাগালে পেনাল্টি পায় মুম্বই। স্পটকিক থেকে শেষ বাঁশি বাজার কয়েক মুহূর্ত আগে জোরালো শটে জয়সূচক গোলটি করে যান অ্যাডাম ফন্ড্রে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।