পানাজি: সপ্তম আইএসএলের তৃতীয় ম্যাচে সুপার সানডে’তে মুখোমুখি দুই হেভিওয়েট। গোয়ার ফতোরদা স্টেডিয়ামে রবিবার সন্ধ্যায় ২০১৮-১৯ ফাইনালের পুনরাবৃত্তি। অর্থাৎ, গতবারের লিগ উইনার শিল্ড জয়ী এফসি গোয়া বনাম গতবারের লিগে তৃতীয় স্থানাধিকারী বেঙ্গালুরু এফসি। সার্জিও লোবেরার প্রশিক্ষণে ২০১৯-২০ মরশুমে অনুরাগীদের দুরন্ত ফুটবল উপহার দিয়েছিল এফসি গোয়া। অন্যদিকে ২০১৮-১৯ চ্যাম্পিয়ন বেঙ্গালুরুকে বিদায় নিতে হয়েছিল সেমিফাইনালে এটিকে’র কাছে হেরে।

সার্জিও লোবেরা গোয়া ছেড়ে এখন মুম্বইয়ে। সঙ্গে নিয়ে গিয়েছেন তারকা মিডফিল্ডার হুগো বোউমাস, আহমেদ জাহৌ এবং রক্ষণে নির্ভরতা জোগানো মোর্তাদা ফলকে। স্বাভাবিকভাবেই নয়া বিদেশি সমন্বয়ে নয়া কোচ জুয়ান ফেরান্দোর প্রশিক্ষনে নবরূপে আত্মপ্রকাশ ঘটছে এফসি গোয়ার। ২০১৫ এবং ২০১৮-১৯ তীরে গিয়েও তরী ডুবেছিল গোয়ার। ফাইনালে পৌঁছেও রানার্স হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল গৌর’দের। গত মরশুমে লোবেরার মতোই আক্রমণাত্মক ফুটবলে বিশ্বাসী ৩৯ বছরের তরুণ কোচ ফেরান্দো। স্প্যানিশ কোচ জানিয়েছেন, ‘আমরা আক্রমণাত্মক ফুটবলই উপহার দেব। ক্লাব এই দর্শনেই বিশ্বাস করে এবং ঠিক সে কারণেই আমি প্রস্তাবটা গ্রহণ করেছি। আমিও আক্রমণাত্মক ফুটবলেই বিশ্বাস করি।’

উল্লেখ্য, প্রথম দল হিসেবে গত মরশুমে লিগ উইনার শিল্ড জিতে সরাসরি এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে এফসি গোয়া। জাহৌ, বোউমাস, ফলের পাশাপাশি দল ছেড়েছেন গত তিন মরশুমের সর্বোচ্চ গোলদাতা ফেরান কোরোমিনাসও। তবে বেশ কিছু ভালো ফুটবলারের অন্তর্ভুক্তিও ঘটেছে। স্প্যানিশ স্ট্রাইকার ইগর আঙ্গুলো, স্পেনের ক্লাবে খেলে আসা তরুণ ভারতীয় স্ট্রাইকার ইশান পান্ডিতা ভরসা জোগাচ্ছেন এফসি গোয়াকে। এছাড়া মাঝমাঠে এদু বেদিয়ার মতো বিদেশি কিংবা ব্র্যান্ডন ফার্নান্দেজ, লেনি রডরিগেজের মতো স্বদেশীরাও ভরসার অন্যতম জায়গা ফেরান্দোর। রক্ষণেও ফলের অভাব পূরণে এ-লিগ খ্যাত জেমস দোনাচিকে নিউক্যাসেল জেটস থেকে লোনে নিয়েছে তারা।

অন্যদিকে ২০১৮-১৯ চ্যাম্পিয়ন বেঙ্গালুরু টুর্নামেন্টের অন্যতম ধারাবাহিক দল। আপফ্রন্টে সুনীল ছেত্রী দলের সবচেয়ে ভরসার জায়গা হলেও বেঙ্গালুরু দলেও এবার একাধিক বিদেশির আগমণ ঘটেছে। এছাড়া গোলের নীচে গত মরশুমে রেকর্ড ১১টি ক্লিন শিট রাখা গুরপ্রীত সিং সান্ধু তো রয়েছেনই। ছেত্রী ছাড়াও আপফ্রন্টে বেঙ্গালুরুর ভরসা নবাগত নরওয়ের স্ট্রাইকার ক্রিস্টিয়ান ওসপেথ। ঠিক তেমনই উইংয়ে ব্রাজিলিয়ান ক্লেইটন সিলভা কিংবা মোহনবাগানের আইলিগ জয়ের অন্যতম সৈনিক স্প্যানিশ ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ফ্রান গঞ্জালেসের উপরেও ভরসা রাখছেন কার্লোস কুয়াদ্রাত।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।