মেরঠ : ভগবত গীতা আবৃত্তি করার জন্য ফতোয়া জারি করা হল ১৫ বছরের এক কিশোরীর বিরুদ্ধে৷ তার নাম আলিয়া খান৷ দেওবাদের দার-উল-উলুম তার বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করেছে৷ আলিয়া জানিয়েছে, “ইসলাম এতটাও দুর্বল নয় যে আমরা কেবলমাত্র ভগবত গীতা পড়ার জন্য বা বিশেষ ধরনের পোশাক পরার জন্য তা থেকে বিচ্যুত হব৷”

২ জানুয়ারি ইসলামিক সংগঠনটি আলিয়ার বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করে৷ স্কুলের একটি অনুষ্ঠানে হিন্দুদের পবিত্র গ্রন্থ গীতা পাঠ করে আলিয়া৷ তারপরই তার বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি হয়৷

আলিয়া জানিয়েছে, সে একটি প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল৷ প্রতিযোগিতার অংশ হিসেবেই সে কৃষ্ণের মতো পোশাক পরেছিল ও গীতা আবৃত্তি করেছিল৷ কিন্তু “তারা” ফতোয়া জারি করে৷

প্রতিযোগিতায় আলিয়া দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছ৷ পুরস্কার স্বরূপ ২৫ হাজার টাকাও পেয়েছে সে৷ উত্তরপ্রদেশ সরকারের তরফ থেকে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল৷ স্বাধীনতার যুদ্ধের সময় ঐতিহাসিক লখনউ চুক্তির ১০১ বছর পূর্তি উপলক্ষে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল৷ বিখ্যাত স্বাধীনতা সংগ্রামী বাল গঙ্গাধর তিলকের অনুদিত ভগবত গীতা নিয়ে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল৷ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের রাজ্যপাল রাম নায়ক, মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ও দেবেন্দ্র ফড়নবীশ৷ ১১টি জায়গা থেকে প্রায় ১৫০ জন ছাত্রছাত্রী প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল৷