প্রতীকী ছবি

পাটনা: বিহারের পূর্ণিয়া জেলার সদর থানা এলাকায় যে ঘটনা ঘটল, তা জানলে বাবা-মেয়ের সম্পর্ক থেকে যেন বিশ্বাস উঠে যাবে৷ সৎ বাবাই ধর্ষণ করে ১৩বছরের নাবালিকাকে৷ একবার, দুবার নয়, গত তিন বছর ধরে লাগাতার এই অপরাধ করে চলেছে সেই ব্যক্তি৷ নির্যাতিতার মায়ের অভিযোগে ঘটনা প্রকাশ্যে আসে৷ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: ২৪জন মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এই ‘জনপ্রিয়’ প্রযোজকের বিরুদ্ধে

পুলিশের বক্তব্য অনুযায়ী, পূর্ণিয়ার গুলাববাগ এলাকার বাসিন্দা ওই অভিযুক্ত৷ সে রাতে তার সৎ মেয়েকে ভয় দেখিয়ে, প্রলোভন দেখিয়ে নিজের কাছে ডেকে পাঠাত, আর তারপরেই তাকে ধর্ষণ করত৷ ওই ব্যক্তির ভয়ে কখনোই মুখ খোলেনি নির্যাতিতা৷ কিন্তু এতদিন ধরে সেই অত্যাচার সহ্য করার পর সে একদিন সবকিছু তার মা-কে জানায়৷ প্রথমে মেয়েটির কথা তার মা বিশ্বাস না করলেও, পরে সব শুনে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানায় নির্যাতিতার মা৷

আরও পড়ুন: কোচিং সেন্টারে মাসের পর মাস ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার শিক্ষক

পূর্ণিয়া মহিলা থানার পক্ষ থেকে মাধুরী কুমারী সোমবার জানান, নির্যাতিতার মায়ের বয়ানের ভিত্তিতে পসকো-র বিভিন্ন ধারা সহ নাবালিকাকে ধর্ষণ করার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে৷ রবিবারই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা তিনি৷ তিনি আরও জানান, অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি অন্যান্য অপকর্মের জন্য ইতিপূর্বে জেলে গিয়েছে৷ নির্যাতিতার চিকিৎসা চলছে এবং সমগ্র ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷