নয়াদিল্লি: পাকিস্তানের দিক থেকে জঙ্গি অনুপ্রবেশ রুখতে দ্রুত লেজার ওয়াল বসাতে চলেছে ভারত। সোমবার একথা জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজু। তিনি বলেন, অত্যন্ত দ্রুত এগোচ্ছে কাজ। এক বছরের মধ্যে এই কা সম্পূর্ণ করা হবে বলে জানান তিনি।

জম্মু-কাশ্মীর, পঞ্জাব, রাজস্থান ও গুজরাতে ইন্দো-পাক সীমান্তে বসানো হচ্ছে এই লেজার ওয়াল।  ইতিমধ্যে নজরদারি চালাতে ও জঙ্গি অনুপ্রবেশ রুখতে পঞ্জাব সীমান্তে বসানো হয়েছে এই পাঁচিল। ভারত-পাক সীমান্তের বেশ কয়েকটি জায়গায় কাঁটাতারের বেড়া নেই। নানা কারণে সেখানে কাঁটাতার দেওয়া যায়নি। রাতের পর রাত জেগে সেইসব জায়গায় পাহারা দেন বিএসএফ জওয়ানরা। অভিযোগ, সীমান্তরক্ষী বাহিনীর নজর গলেই সেই সব জায়গা দিয়েই ভারতে অনুপ্রবেশ হয়। নাশকতার উদ্দেশে এখান দিয়েই ভারতে ঢুকে পড়ে জঙ্গিরা। তাই বছর দুই আগেই সীমান্তের এই সব অঞ্চলেলেজার পাঁচিলে ঘিরে ফেলার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। পাঠানকোট জঙ্গি হামলার পর এর দ্রুত তোড়জোড় শুরু হয়ে যায়।

বিএসএফ সূত্রে খবর, স্যাটেলাইট নির্ভর সিগন্যাল কম্যান্ড সিস্টেম কাজে লাগিয়ে সীমান্তের ওই এলাকাগুলোয় এ বার নজরদারি চালানো হবে। এরই মধ্যে পঞ্জাবের সীমান্ত অঞ্চলে আটটি অনুপ্রবেশের সনাক্তকরণ সিস্টেম বসে গিয়েছে। সেগুলো ঠিকমতো কাজ করাও শুরু করেছে।