কলকাতা: কেন্দ্রের নতুন কৃষি আইন কৃষক বিরোধী বলে অভিযোগ তুলেছে দেশেজুড়ে চাষীরা। ইতিমধ্যেই দেশের নানা জায়গায় বিক্ষোভ প্রতিবাদ হতে দেখা গিয়েছে। এবার সর্বভারতীয় প্রতিবাদের জন্য দিল্লি চলো অভিযান করা হবে। সারা ভারত কৃষক সংঘর্ষ সমিতির নেতারা ঠিক করেছেন ২৬-২৭ নভেম্বর দিল্লি চলো অভিযান হবে। গোটা দেশের কৃষকরা সমবেত হবেন রাজধানীতে।

সংসদে কৃষি বিল উত্থাপনের সময় থেকেই গোটা দেশের কৃষকদের প্রতিবাদ শুরু হয়েছে। সংসদে বিরোধীরা এর প্রতিবাদ করলেও তা পাস হয়েছে এবং তারপর তা আইনে পরিণত হয়েছে। কিন্তু বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের এই মনোভাব ক্ষুব্ধ হয়েছে জোট শরিকরাও। জোট ভেঙে বেরিয়ে এসেছে শিরোমনিআকালি দল।

কৃষি আইনের বিরোধিতা করতে বেশ কিছু কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। ২ অক্টোবর সারা ভারতের কৃষকরা এই-কৃষি আইনের‌ যারা বিরোধিতা করছে না তাদের সামাজিক বয়কটের শপথ নেবেন।

পাঞ্জাবের রেল রোকো আন্দোলন হবে এবং ৬ অক্টোবর হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী দ্যুষন্ত চৌতালার পদত্যাগের দাবিতে তার বাসভবনের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবেন কৃষকরা। ১৪ অক্টোবর পালিত হবে ন্যূনতম মূল্য সংগ্রহ দিবস হিসেবে।

২৫০টি সংগঠন নিয়ে এই কৃষক সংঘর্ষ সমিতি গড়ে উঠেছে। যখন অর্ডিন্যান্স আনা হয় তখন থেকেই কৃষকরা প্রতিবাদ জানাতে থাকে।৯ আগস্ট দেশের ৫১ হাজার জায়গায় কৃষকদের বিক্ষোভ হয়েছে। ৫ সেপ্টেম্বর ১০ হাজার জায়গায় বিক্ষোভ হয়।

১৪ সেপ্টেম্বর বহু গ্রামেগঞ্জে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হয়। তারপরেও সরকার জবরদস্তি সংসদে বিল পাস করে। তারপর ২৫ সেপ্টেম্বর দেশ জোড়া বিক্ষোভ হয়েছে। এবার এই প্রতিবাদ যাতে আরও বড় আকার ধারণ করে তার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে দেশজুড়ে কৃষকরা।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।