জয়পুর: করোনা রুখতে সরকারি নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙুল দেখানোর খেসারত। এলাহি আয়োজনে বিয়ে সেরে করোনায় আক্রান্ত খোদ বর। এমনকী মারণ ভাইরাস প্রাণ কাড়ল এক বৃদ্ধেরও। এখনও পর্যন্ত বিয়েবাড়ির ১৬ জনের শরীরে নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। রাজস্থানের ভিলওয়ারা জেলার এই ঘটনায় প্রশাসনের নজরদারি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

করোনার সংক্রমণ এড়াতে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে শুরু থেকেই সচেতন করে আসছেন বিশেষজ্ঞরা। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলির তরফেও বারবার মুখে মাস্ক পরা, সসামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা-সহ করোনা এড়াতে একাধিক সতর্কতামূলক প্রচার করছে।

কিন্তু একাংশের মানুষের সেসবের থোড়াই কেয়ার। রাজস্থানের ভিলওয়ারা জেলায় করোনা আবহে সরকারি বিধি-নিষেধ উপেক্ষা করেই এলাহি বিয়ের আয়োজন হয়।

বিয়েবাড়িতে সামাজিক দূরত্ব শিকেয় তুলে দেদার-আনন্দ চলে। পরবর্তী ক্ষেত্রে ‘শাস্তি’ স্বরূপ বিরাট অঙ্কের জরিমানা গুণতে হয়েছে পরিবারটিকে। শুধু তাই নয়, সব নিয়মকে উপেক্ষা করে জমকালো বিয়ের অনুষ্ঠান করায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বর। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে বরের ঠাকুরদার।

দেশের একাধিক রাজ্যের পাশাপাশি মারণ করোনার সংক্রমণ ক্রমেই উদ্বেগ বাড়াচ্ছে মরুরাজ্য রাজস্থানে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী রাজস্থানে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৬ হাজার ৯৪৪।

করোনায় সেরাজ্যে এখনও পর্যন্ত ৩৯১ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজস্থান সরকারের তরফে, করোনা আবহে বিয়ে কিংবা শ্রাদ্ধের অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল।

সেই নির্দেশিকাকে তোয়াক্কা না করে ১৩ জুন আড়াইশোরও বেশি আমন্ত্রিতকে নিয়ে এলাহি বিয়ের আয়োজন করা হয়। এমনকী আমন্ত্রিতদের কারও মুখে দেখা যায়নি মাস্ক। বিয়েবাড়িতে ছিল না স্যানিটাইজারের ব্যবস্থাও। সেদিন ধুমধাম করে বিয়ে মিটে যায়। আনন্দে তাল কাটল ঠিক তার কয়েকদিন পরে।

জানা গিয়েছে, করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন খোদ বর-সহ তাঁর দুই আত্মীয়। এমনকী করোনায় আক্রান্ত হয়ে বরের ঠাকুরদার মৃত্যু হয়েছে।

সব মিলিয়ে ওই বিয়েবাড়িতে আমন্ত্রিত মোট ১৫ জনের শরীরে মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সংক্রমিতদের সংস্পর্শে আসা ওই বিয়েবাড়িতে আমন্ত্রিত প্রায় দেড়শোজনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, সরকারি নির্দেশিকা ভেঙে করোনা আবহে এলাহি বিয়ের আয়োজন করায় পরিবারটিকে মোটা অঙ্কের জরিমানা করেছে প্রশাসন। একইসঙ্গে বিয়েবাড়িতে আমন্ত্রিতদের যাঁদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে, তাঁদের সেখানে থাকা ও খাওয়ার সব খরচও গুণতে হবে পরিবারটিকে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ