স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: গোপন সুত্রে খবর পেয়ে ভোররাতে তল্লাশি অভিযান চালিয়ে জাল নোচট উদ্ধার করল পুলিশ৷ শুক্রবার নিউ ফরাক্কা মোড়ে পবিত্র নামে একটি হোটেলের ৩৩ নম্বর ঘরে অভিযান চালানো হয়৷ সেখান থেকে গ্রেফতার করা হয় দুজনকে৷ ধৃতদের নাম রঘুনাদা নাইডু এবং রাজেশ দেওয়ালা। এরা দুজনই অন্ধ্রপ্রদেশের চিত্তরের বাসিন্দা বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ৭ লক্ষ টাকার জাল নোট।

জেলা পুলিশ সুপার শ্রী মুকেশ জানান, মালদহের বৈষ্ণবনগর থেকে এই জালনোটগুলি কেউ তাদের দিয়ে গিয়েছে বলে জেরায় জানিয়েছে ধৃতরা৷ এই চক্রের সঙ্গে আর কারা কারা জড়িত, তাদের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ। এর আগেও ধৃতরা ২ থেকে ৩ বার টাকা নিতে এসেছিল বলে জানা গিয়েছে৷

ধৃতদের মধ্যে রাজেশ দেওয়ালা পেশায় ট্রাকচালক৷ এখানে আরেক ট্রাকচালকের সঙ্গে পরিচয় হওয়ায়, তার সূত্র মারফতই জালনোট কারবারির সাথে যোগাযোগ হয় রাজেশের৷ এদিন জেলা পুলিশ সুপার জানান ২০১৮ সালে মুর্শিদাবাদ জেলায় মোট ১ কোটি ২৪ লক্ষ ৫৮ হাজার টাকার জালনোট উদ্ধার হয় এবং গ্রেফতার করা হয় ৮৪ জনকে। এবছর এখনও পর্যন্ত ১০ লক্ষ ২৮ হাজার টাকার জালনোট উদ্ধার হয়েছে এবং ১০ জন গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 

ধৃতরা এই ৭ লক্ষ টাকা পাওয়ার জন্য সাড়ে তিন লক্ষ টাকা দিয়েছিল। এর আগে জালনোট পাচারকারীর সাথে বিহার যোগ পাওয়া গিয়েছিল৷ কিন্তু এই প্রথম অন্ধ্রপ্রদেশ যোগ মিলল বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ এদিন ধৃতদের আদালতে তোলা হবে এবং পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হবে বলে জানান জেলা পুলিশ সুপার শ্রী মুকেশ৷