নয়াদিল্লি:  উপকূলে আছড়ে পড়ার পরেই কমে যায় হাওয়ার গতিবেগ। নিসর্গের তাণ্ডব থেকে মুক্তি পেয়েছে মুম্বই। ‌বুধবার দুপুর ১ টায় আছড়ে পড়ে সেই ঝড়। এরপর গতি কমতে শুরু করে। আর তা ক্রমশ গতি কমতে কমতে পুনের দিকে চলে যায়। এবারের মত কোনোক্রমে রক্ষা পেয়ে গেল মুম্বই।

বাণিজ্য নগরীতে তেমন কোনও ক্ষতি হয়নি এখনও পর্যন্ত। যদিও সাইক্লোন নিসর্গের কারণে এখনও পর্যন্ত তিনজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া যাচ্ছে। যদিও সন্ধে ৭ টা পর্যন্ত বিমান পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়। জারি থাকে হাই অ্যালার্টও। মুম্বই থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে আলিবাগে আছড়ে পড়ে এই ঝড়। হাওয়ার প্রবল বেগে গাছ উপড়ে যায়।

আলিবাগে ৯৩ কিমি প্রতি ঘণ্টা বেগে হাওয়া বইছিল সেইসময়। বন্ধ হবে যায় রাস্তা। আলিবাগের দক্ষিণ দিক দিয়ে এটি যাবে বলে আগেই জানিয়েছিলেন আবহাওয়াবিদরা। গতি হবে সর্বোচ্চ ১২০ কিলোমিটার। এটি লেভেল ২এর ঘূর্ণিঝড় বলে জানায় হাওয়া অফিস। আশঙ্কার কথা মাথায় রেখে প্রকাশ্যে মানুষের চলাচলে বিধিনিষেধ জারি করে মুম্বই।

মুম্বই উপকূলের তীরবর্তী সমুদ্র সৈকত, পার্ক এরকম খোলা জায়গায় বেরোনোর ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। গুজরাত, দমন-দিউ, দাদরা নগর হাভেলি এই সমস্ত জায়গায় ঝড়ের কারণে হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়। কিন্তু এই সবের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায় একটি ছবি। এবং অবশ্যই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়। মাত্র ১৫ সেকেন্ডের ভিডিও ভাইরাল হয়।

যেখানে দেখা যাচ্ছে, গভীর সমুদ্র থেকে টর্নেডোর জল আকাশের দিকে উঠে যাচ্ছে। আর তা ক্রমশ উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে। অনেকেই এই ভিডিওটিকে আজকের মুম্বইয়ের ভিডিও বলে উল্লেখ করতে থাকে। অনেকের ক্যাপশনে লেখেন, মুম্বইয়ের দিকে ধেয়ে আসছে নিসর্গ।

শুধু ইউজাররাই নন, একাধিক সংবাদমাধ্যমও তাঁদের সোশ্যাল মিডিয়াতে নিসর্গের ভিডিও বলে শেয়ার করে। কিন্তু সত্যিই কি এদিনের ভিডিও এটি? ফেক্ট চেক করতে নামে ইডিয়া টুডে। তাঁরা সবদিক বিবেচনা করে জানায়, ভিডিওটি আসলে ভুয়ো। আজকের মুম্বই অর্থাৎ নিসর্গের সঙ্গে কোনও যোগই নেই। এটি অন্তত সাত মাস আগের একটি ভিডিও বলে দাবি করেছে ওই সংবাদ।

তাঁরা বিভিন্ন সোর্সকে কাজে লাগিয়ে জানতে পেরেছে যে, ২০১৯ সালে ২৫ অক্টোবর ইউটিউবে এটি আপলোড করা হয়। যার টাইটেলে লেখা হয়,“Kyarr Cyclone #karnataka”। সেই সময় একই ভিডিও কর্ণাটকের একটি সংবাদ চ্যানেলও চালায় বলে জানতে পেরেছে ইন্ডিয়া টুডে।

এই সেই সাতমাস আগের পুরানো ভিডিও-

 

তবে যাই হোক এটি এদিনের মুম্বইয়ের ভিডিও না। সম্পূর্ণ ভুয়ো। ফলে শেয়ার করার আগে সাবধান।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প