কলকাতা:করদাতাদের হয়রানি কমাতে উদ্যোগী হচ্ছে কেন্দ্র৷ আর তাই এবার শুরু হচ্ছে ‘ফেসলেস’ কর নির্ধারণ প্রক্রিয়া৷ শুক্রবার কলকাতা এসে সেকথা জানালেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন৷ এরফলে বিজয়া দশমী মানে ৮ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে এই নয়া কর নির্ধারণ প্রক্রিয়া৷

এতদিন কর নির্ধারণ করা হতো নির্ধারক আয়কর অফিসার ও করদাতা মুখোমুখি বসিয়ে৷ কিন্তু নয়া ফেসলেস প্রক্রিয়ায়- এবার তা না করে দেশের যে কোনও জায়গার অফিসার যে কোনও জায়গার করদাতার কর নির্ধারণ করতে পারবেন। আগের প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন উঠত কিন্তু এবার কর অফিসার কার কর নির্ধারণ করছেন সেটাই জানতে পারবেন না৷এ ক্ষেত্রে পুরো প্রক্রিয়াটা কম্পিউটার মারফত নির্ধারিত হবে। ফলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির কর যাচাই প্রক্রিয়া কোন আধিকারিক করবেন সেটাও ঠিক করে দেবে কম্পিউটার।

পাশাপাশি সীতারামন জানান, কারও নামের পরিবর্তে এখন থেকে একটি ডক্যুমেন্ট আইডেন্টিফিকেশন নম্বর বা ডিআইএন পাঠানো হবে। প্রযুক্তি নির্ভর এই নয়া প্রক্রিয়া ১ অক্টোবর থেকে চালু করা হবে। সামগ্রিক ভাবে কর আদায় প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা আনতে এমন ব্যবস্থা বলে তিনি জানান। সে ক্ষেত্রে ক্লেম নোটিসে ডকুমেন্ট আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার (ডিআইএন) থাকবে।

প্রায়শই করদাতাদের হেনস্তা করতে আয়কর দফতর নোটিস পাঠাত বলে অভিযোগ শুনতে হয় কেন্দ্রকে। কিন্তু করদাতাদের হয়রানি কমাতে উদ্যোগী কেন্দ্র৷ তাছাড়া অর্থনৈতিক মন্দার পরিস্থিতিতে দেশের শিল্পমহল এবং করদাতাদের পাশে পেতে বিভিন্ন শহরের কর আধিকারিক এবং বণিকসভার প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী৷ সেই উদ্দেশ্যেই তার শুক্রবার কলকাতা আসা৷ ইতিমধ্যে দেশের ছয় শহরে এমন বৈঠকের সেরেছেন তিনি৷