বর্তমানে সাধারণ মানুষের কাছে অন্যতম যোগাযোগের মাধ্যম সোশ্যাল মিডিয়া। আর সোশ্যাল মিডিয়া বলতে সব থেকে যে নামটি আসে তা হল ফেসবুক। এবারে জানা গিয়েছে খুব দ্রুত ফেসবুক পেতে চলেছে এক নতুন চেহারা।

ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার শীঘ্রই একটি নতুন আপডেট পেতে চলেছে। এই অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহারকারীদের ভালো অভিজ্ঞতা দেওয়ার জন্য চ্যাটবটগুলি বিচ্ছিন্ন করে দেবে। এর মূল কারণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে ব্যবহারকারীদের আকর্ষণ বৃদ্ধি করা এবং বিষয়টি সহজ রাখা।

টেকক্রাঞ্চের তরফে, নতুন ডিজাইনে, এমন একটি বিভাগ থাকবে যেখানে ফেসবুকে বন্ধুদের প্রোফাইলের বৈশিষ্ট্য দেখা যাবে, যারা সম্প্রতি ফেসবুকে সক্রিয় ছিলেন বা কোনও স্টোরি আপডেট করেছেন। এছাড়াও স্টোরি ট্যাবের পাশে, একটি ট্যাব থাকবে যা অনলাইনে থাকা বন্ধুদের নাম দেখাবে।

বর্তমানে মেসেঞ্জারে তিনটি বিভাগ থাকে। চ্যাট, পিপল এবং ডিস্কভার। চ্যাটে কার কার সঙ্গে কথা হয়েছে তা দেখা যায়। পিপল ট্যাবে কারা অনলাইন রয়েছে তা দেখা যায়।

সাম্প্রতিক প্রকাশিত রিপোর্টে জানা গিয়েছে নতুন পদক্ষেপের ফলে মানুষ আরও বেশি সময় ফেসবুকে কাটাতে চাইবেন। এছাড়াও ফেসবুক থেকে পাওয়া সুবিধা নিতে চাইবেন।

ফেসবুকের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন নতুন ডিজাইনটি শীঘ্রই চালু হবে। এই পরিবর্তন যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। এর ফলে মানুষ ফেসবুকে আরও আগ্রহী হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।