ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বাঁকুড়ার শালতোড়া থানার পাবড়া মোড় থেকে উদ্ধার হল আনুমানিক ষাট থেকে সত্তর লক্ষ টাকার বিস্ফোরক৷ এইগুলি উদ্ধার করেন কলকাতা থেকে আসা সিআইডি-র একটি প্রতিনিধি দল।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোরের আলো ফোটার আগেই সিআইডি-র ওই প্রতিনিধি দলটি পাবড়া মোড়ের একটি গোডাউনে হানা দেন। সেখান থেকে বস্তা বন্দী জিলেটিন স্টিক, অ্যামোনিয়াম নাইট্রেটের পাশাপাশি ডিটোনেটর উদ্ধার করেছেন।

বিশেষ সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গিয়েছে, উদ্ধার হওয়া ওই বিস্ফোরকের মধ্যে অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ১৩৩ বস্তা, জিলেটিন স্টিক ২৫ কেজি করে মোট ১০৬ টি, ডিটোনেটর ৫২ হাজার ৫০০ পিস রয়েছে।

লোকসভা ভোটের আগে এই ধরণের বিস্ফোরক উদ্ধারকে ঘিরে জেলা জুড়ে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। কে বা কারা কি উদ্দেশ্যে ব্যস্ততম রাস্তার উপর গোডাউনে এনে জমা করলো তা নিয়েই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। যদিও সিআইডি-র তরফে সংবাদমাধ্যমের কাছে এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। এই ঘটনায় কেউ গ্রেফতার বা আটক হয়নি বলে জানা গিয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।