কেপ টাউন: সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি হারের ময়নাতদন্তে নেমে ভারতীয় বোলারদের প্রশংসায় প্রোটিয়া কোচ ওটিস গিবসন৷ তাঁর মতে, ‘ভারতীয় বোলারটাই সিরিজের শেষ ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দিল’

নিউল্যান্ডসে ফাইনাল ম্যাচে ভারতীর বোলারদের দাপটে বোলিংয়ের সুবাদে ৭ রানে ম্যাচ জিতে ২-১ সিরিজ পকেটে পোড়ে ভারত৷ কেপটাউন টি-টোয়েন্টির ফাইনাল ওভারে প্রোটিয়াদের প্রয়োজন ছিল ১৯ রান৷শেষ ওভারে আঁটোসাঁটো বোলিং করে ভুবি খরচ করেন ১১ রান, তুলে নেন একটি উইকেট৷

গিবসন তাই বলছেন ,‘তার দলে ডালার মতো তরুণ পেসার কেপ টাউন টি-টোয়েন্টিতে দুরন্ত বোলিং করলেও অনান্য পেসাররা ধারাবাহিকতা দেখাতে পারেনি’৷ সঙ্গে যোগ করেন, ‘শেষ কয়েকবছরে আইপিএল থেকে ম্যাচ উইনার উঠে আসছে৷ ভারত আইপিএল থেকে অনেক উপকৃত হচ্ছে৷ ভারতীয় বোলারদের সাফল্য লুকিয়ে রয়েছে আইপিএলে৷ ভুবনেশ্বর কুমার-জসপ্রীত বুমরাহের মতো ক্রিকেটার আইপিএল থেকেই অনেক অভিজ্ঞতা পেয়েছে৷’

সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি সিরিজের তিন ম্যাচে সাত উইকেট পেয়েছেন ভুবি৷ সিরিজ নির্ণায়ক ম্যাচে মাত্র ২৪ রান খরচ করেন ভুবনেশ্বর, তুলে নেন গুরুত্বপূর্ণ দুটি উইকেট৷ তিন ম্যাচে ভুবির খরচ করেছেন মাত্র ৬৭ রান৷ প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মাত্র ২৪ রান দিয়ে তুলে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট৷ তাঁর নাকল বল সামলাতে হিমসিম খেয়েছে প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানরা৷

শুধু টি-টোয়েন্টিতেই নয়, ওয়ান ডে ও টেস্ট সিরিজেও বল হাতে প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানকে সমস্যায় ফেলেছে ভারতীয় বোলাররা৷

তিন টেস্টের ছয় ইনিংসেই প্রোটিয়া ব্যাটিং ব্রিগেডকে অলআউট করে ভারত৷ ৬ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজে আবার চারবার প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানদের পর্যুদস্ত করে অলআউট করেছে ভারতীয় বোলাররা৷ অতীতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাওয়া ভারতীয় কোনও দলের এমন নজির নেই৷