নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: ৩০৬ টি আসন নিয়ে ক্ষমতায় আসছে সেই বিজেপি৷ টাইমস নাউয়ের সমীক্ষা বলছে মার্জিন কমেছে, তবু মোদী-শাহ ম্যাজিক কাজ করে গিয়েছে এবারও৷ ২০১৪ সালে কাজ করেছিল প্রতিষ্ঠান বিরোধিতার হাওয়া৷ আর এবার প্রতিষ্ঠানের পক্ষেই রায় দিয়েছে দেশ৷ প্রো ইনকামবেন্সি ফ্যাক্টর কাজ করে গিয়েছে ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে, এমনই জানাচ্ছে টাইমস নাও৷

চমকে দিয়েছে বাংলা৷ বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে ১১টি পেতে চলেছে বিজেপি৷ ৯টি আসন বাড়িয়ে মুকুল রায়কে স্বস্তি দিয়ে বাংলায় ফুটতে চলেছে পদ্মফুল৷ অন্যদিকে ২৯টি আসন পাবে তৃণমূল, বলছে সমীক্ষা৷ শতাংশের হিসেবে বিজেপির দখলে ৩১.৮৬ শতাংশ৷ কংগ্রেসের শিকে ছিড়বে ৮.৮ শতাংশ৷ তৃণমূলের দখলে ৩৯.১ শতাংশ ও বামেদের ভাগ্যে জুটেছে ১৫.৯ শতাংশ ভোট৷

নজরে ছিল উত্তরপ্রদেশ৷ বলা হয় এই রাজ্যের সবচেয়ে বেশি আসন যার, কেন্দ্রে ক্ষমতা তার৷ ৮০টি লোকসভা আসনের মধ্যে বিজেপির ভাগ্যে আসতে চলেছে ৫৬টি আসন৷ সেখানে মহাগঠবন্ধন বা এসপি বিএসপি জোট পাচ্ছে ২০টি আসন৷

উত্তর ভারতে উত্তরাখণ্ড, হিমাচল প্রদেশের মত রাজ্যগুলিতে ক্ষমতায় থাকছে বিজেপি৷ তবে ব্যতিক্রম জম্মু কাশ্মীর৷ সেখানে কংগ্রেস ৬টি আসনের মধ্যে পাবে ৪টি আসন, বিজেপি ২টি আসন পাবে বলেই মনে করা হচ্ছে৷ তবে কংগ্রেস ধাক্কা খাচ্ছে কর্ণাটকে৷ সেখানে ২৮টি আসনের মধ্যে ২০টিই পাচ্ছে বিজেপি, বলছে সমীক্ষা৷ সবমিলিয়ে ফের বিজেপির পালে হাওয়া৷ শেষ মুহূর্তে তুরুপের তাস প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে ব্যবহার করেও বিশেষ লাভ হল না কংগ্রেসের৷