বেঙ্গালুরু: আরও একবছর মোহনবাগানের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ছিলেন তিনি। কিন্তু আইলিগ জয়ের পর এটিকে’র সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে মোহনবাগান আইএসএলে আত্মপ্রকাশ করায় আইলিগ জয়ী দলের বিদেশি সৈনিকদের কেউই মোহনবাগানের হাত ধরে আইএসএলে আসতে পারেননি। জোসেবা বেইতিয়া, ফ্রান মোরান্তে, পাপা বাবকর দিওয়ারা মতো বাকিদের সঙ্গে সেরাটা উজাড় করে দেওয়ার পরেও তাই কোনওভাবেই এটিকে-মোহনবাগানে জায়গা হয়নি ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ফ্রান গঞ্জালেসের।

যেহেতু মোহনবাগানের সঙ্গে এই স্প্যানিয়ার্ডের আরও একবছরের চুক্তি ছিল তাই নতুন মরশুম শুরুর আগে মোহনবাগানে তাঁর ভবিষ্যত কী, এব্যাপারে বাগান কর্তাদের কাছে জানতে চেয়েছিলেন ফ্রান। আইনজীবী মারফৎ ফ্রানের পাঠানো সেই প্রশ্নের সদুত্তর দিতে পারেননি বাগান কর্তারা। স্বাভাবিকভাবেই মাসখানেক আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছুটা অভিমানের সুরেই মোহনবাগান কর্তাদের প্রতি ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন কিবুর আইলিগ জয়ী দলের বিশ্বস্ত সেনানী। সমর্থকদের কাছে ফ্রান জানতে চেয়েছিলেন, তাঁকে কী মেরিনার্সরা ভুলে গিয়েছেন নাকি মনে রেখেছেন?

সেই উত্তরে যদিও বাগান সমর্থকদের থেকে অফুরান ভালোবাসা পেয়েছিলেন ফ্রান। তবে এটিকে-মোহনবাগান ফ্রানকে দলে নেওয়ার ব্যাপারে উৎসাহ না দেখালেও সমর্থকদের চমকে দিয়ে ২০২০-২১ আইএসএলে মাঠে নামতে চলেছেন ফ্রান গঞ্জালেস। অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। শেষমুহূর্তে বাগানের আইলিগ জয়ের অন্যতম সেনানীকে দলে তুলে নিয়ে চমক দিল বেঙ্গালুরু এফসি। মঙ্গলবার দুপুরেই ফ্রানের যোগদানের বিষয়টি অফিসিয়ালি ঘোষণা করল সুনীল ছেত্রীর দল। নরওয়ে স্ট্রাইকার ক্রিস্টিয়ান ওপসেঠের সঙ্গে এদিন ফ্রানের নাম ঘোষণা করল ২০১৮-১৯ আইএসএল চ্যাম্পিয়নরা। উল্লেখ্য, আসন্ন আইলিগে ফ্রানকে পাওয়ার জন্য কথা শুরু করেছিলেন মহামেডান কর্তারা।

কিন্তু সকলকে অবাক করে আইএসএলে নাম লেখালেন স্প্যানিয়ার্ড। সোশ্যাল মিডিয়ায় খুশির খবর তাঁর ভারতীয় অনুরাগীদের সঙ্গে শেয়ার করে নিলেন ফ্রান গঞ্জালেসও। বাগানের প্রাক্তনী লিখলেন, ‘বুম! অনেকদিন হয়ে গেল ভারতবর্ষকে দেখিনি। তবে যেমনটা কথা দিয়েছিলাম আবার ফিরব, আমি ফিরছি। ধন্যবাদ আইলিগকে। তবে আইএসএল এবার আমি তোমার জন্য প্রতীক্ষা করছি। অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে ঘোষণা করছি যে আসন্ন মরশুমের জন্য আমি বেঙ্গালুরু এফসি’তে যোগদান করছি।

নয়া চ্যালেঞ্জের জন্য ভীষণভাবে উত্তেজিত। একইসঙ্গে নতুন সতীর্থ এবং কোচিং স্টাফেদের সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে আমি। অনুরাগীদের ধন্যবাদ আমাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানোর জন্য। আমি তোমাদের কথা দিচ্ছি সেরাটা উজাড় করে দেব।’

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I