চণ্ডীগড়: একদিকে যখন ভারতের বিরুদ্ধে তড়পাচ্ছে পাকিস্তান, তার মধ্যেই ভারতে আশ্রয় চাইতে এলেন ইমরানের দলের প্রাক্তন বিধায়ক বলদেব কুমার।

পাকিস্তান থেকে সীমান্ত পার করে তিনি ভারতে পালিয়ে এসেছেন পরিবার সহ। খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের বিধায়ক ছিলেন তিনি। ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টির বিধায়ক বলদেব কুমার এখন রাজনৈতিক আশ্রয় চাইছেন এদেশে।

খাইবার পাখতুনখাওয়ার বারিকোটের বিধায়কের বিরুদ্ধে একটি খুনের মামলা হয়। সরন সিং নামে খাইবার প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর এক পরামর্শদাতাকে খুনে অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। ২০১৮ সালের প্রামণের অভাবে মুক্তি পান বলদেব। তার পরে আর দেশে থাকার সাহস করেননি তিনি।

বলদেব ভারতে এসে বলেন, পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের ওপরে প্রবল অত্যাচার চলছে। হিন্দু ও শিখ নেতারা খুন হচ্ছে। তাই ওখানে আর ফিরতে চান না তিনি। শুধুমাত্র সংখ্যালঘুরাই নন, ওখানে মুসিলমরাও নিরাপদ নন বলে মনে করেন তিনি। তিনি চান ভারত সরকার রাজনৈতিক আশ্রয় দিক। আর ফিরতে চান না তিনি।

উল্লেখ্য, সপ্তাহ দুয়েক আগেই লাহেরে এক শিখ তরুণীকে অপহরণ করে ধর্মান্তর করা হয়। এনিয়ে ইমরান খান সরকারের ওপরে চাপ সৃষ্টি করে দিল্লি সহ পঞ্জাবের বেশ কয়েকটি শিখ সংগঠন। সেই চাপে এখন ওই তরুণীকে ফিরিয়ে দেওয়ার কথা বলছে প্রশাসন।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV