স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: প্রয়াত রাজ্যের প্রাক্তন কারামন্ত্রী অবনীমোহন জোয়ারদার। শুক্রবার তাঁর মৃত্যুর খবর পেয়ে টুইট করে শোক জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। শোক জানিয়েছেন, রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ও। তাঁর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই শোকের ছায়া নামে তাঁর বিধানসভা এলাকাতে। ২০১১ এবং ২০১৬ দু-দু’বার কৃষ্ণনগর (উত্তর) বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছেন তিনি।

দীর্ঘ অসুস্থতার পর মারা গেলেন রাজ্যের প্রাক্তন কারামন্ত্রী তথা তৃণমূল বিধায়ক অবনী জোয়ারদার। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে কলকাতার বাড়িতে প্রয়াত হন তিনি। বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর।

গত কয়েক বছর ধরেই শরীর ভাল যাচ্ছিল না অবনীবাবুর। মাঝে দীর্ঘ সময় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। সেই কারণেই তাঁকে মন্ত্রিসভার দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দিতে হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

এক সময়ে দুঁদে আইপিএস অফিসার ছিলেন তিনি। চাকরি থেকে অবসর নেওয়ার পর তিনি রাজনীতিতে যোগ দেন।

নদিয়ার কৃষ্ণনগর উত্তর আসন থেকে দু’বার বিধানসভা ভোটে নির্বাচিত হয়েছিলেন অবনীবাবু।

২০১৬-এর নির্বাচনে জেতার পর তাঁকে কারা দফতরের মন্ত্রী করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্ত শারীরিক অসুস্থতার কারণেই সেই দায়িত্ব তিনি বেশিদিন সামলাতে পারেননি।তারপরও কিছুদিন তাঁকে দফতরবিহীন মন্ত্রী করেও রেখেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

শুক্রবার দুপুরে তাঁর মরদেহ কৃষ্ণনগরে জেলা পরিষদ ভবনে নিয়ে আসা হয়। সেখানেই তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানায় দলীয় নেতৃত্ব ও এলাকার মানুষ। নবদ্বীপ শ্মশানে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে বলে খবর।

প্রশ্ন অনেক: তৃতীয় পর্ব