স্টাফ রিপোর্টার, মালদহ: তৃণমূল কংগ্রেসের ভাঙন ঘটালেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। শুক্রবার মালদহ কলেজ অডিটোরিয়ামে দলীয় কর্মসূচীতে যোগ দিতে আসেন তিনি। সেই সভাতেই জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠাতা অশোক কুণ্ডুসহ বেশ কয়েকশো কর্মী বিজেপিতে যোগ দিলেন। শুধু তাই নয় কয়েকশো সংখ্যালঘু বিজেপিতে এলেন৷ এদের নেতৃত্বে ছিলেন আবদুল রউফ৷

মুকুল বাবু বলেন, এই জেলার হেভিওয়েট নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন দুই মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী ও সাবিত্রী মিত্র দলের কাছে ব্রাত্য নয়। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আবেদন করলে তা নিয়ে ভাববে দল। প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পদত্যাগ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করেন তিনি।

শোভনের ব্যক্তিগত সমস্যার জন্য এমন হয়নি। অন্দরে রয়েছে অন্য রহস্য। যার তদন্ত হওয়া উচিত। তিনি বলেন, একসময় শোভনের অবদানের জন্য আজ রাজ্যের তৃণমূল কংগ্রেসের অস্তিত্ব রয়েছে৷

এদিকে প্রাক্তন মন্ত্রী তথা জেলার হেভিওয়েট তৃণমূল নেতা কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী জানান, বিজেপিতে যাওয়ার কোন প্রশ্ন নেই। আমি মমতা বন্দোপাধ্যায়ের একনিষ্ঠ সৈনিক। তবে তিনি এও জানান মুকুল রায় যে ট্রেনে মালদহ আসেন। সেই ট্রেনের একই কামরাতে তিনিও ছিলেন। তবে আসন আলাদা। বিজেপি নেতা মুকুল রায় বা বিজেপির কোন নেতার সঙ্গে কোনও কথা হয়নি।