কলকাতা:  খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না প্রাক্তন কলকাতা পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের। এমনটাই সূত্রের খবর। আর তাই তাঁর খোঁজে রাতভর তল্লাশি চালাল সিবিআই। সাদা পোশাকে কলকাতা সহ বিভিন্ন জায়গায় আধিকারিকরা তল্লাশি চালিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। সম্ভাব্য যে সমস্ত জায়গায় প্রাক্তন নগরপাল থাকতে পারেন সেই সময় জায়গায় খোঁজখবর চালানো হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

শুধু তাই নয়, কলকাতা বিমানবন্দরেও ইতিমধ্যে নজরদারি চালানো শুরু করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যোগাযোগ করা হয়েছে অভিভাসন দফতরের সঙ্গেও। যাত্রীদের নামের তালিকাও কোনও সন্দেহভাজন নাম থাকলেই সিবিআইকে জানানোর জন্যে বলা হয়েছে।

শুক্রবারই রাজীব কুমারের উপর থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেয় আদালত। এরপরেই রাজীব কুমারের কাছে পৌঁছে যান সিবিআই আধিকারিকরা। তাঁর সঙ্গে দেখা না হলেও আজ শনিবার সিবিআই দফতরে তাঁকে হাজিরা দেওয়ার জন্যে নির্দেশ দেয় সিবিআই। সূত্রের খবর, শুক্রবারের পর থেকে কোনও খোঁজ নেই রাজীব কুমারের। তাঁর ফোন বন্ধ। এমনকি তাঁর দেহরক্ষীরও ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। ফলে রাজীবের সঙ্গে কোনও যোগাযোগই করে উঠতে পারছেন না সিবিআই আধিকারিকরা। এরপরেই তাঁর খোঁজে তল্লাশি শুরু করেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। কার্যত সম্ভাব্য যে সমস্ত জায়গাগুলিতে নগরপাল থাকতে পারেন সেখানে সাদা পোশাকে তল্লাশি চালান তদন্তকারীরা, এমনটাই সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে। কিন্তু সেখানেও ব্যথ হন তদন্তকারীরা।

তবে তদন্তকারীরা মনে করছেন সম্ভবত কোনও ব্যক্তিকে দিয়ে সিবিআইয়ের কাছে সময় চাইতে পারেন রাজীব কুমার। সেক্ষেত্রে সিবিআইয়ের পদক্ষেপ কি হবে তা নিয়ে ইতিমধ্যে তদন্তকারীরা ইতিমধ্যে ভাবনা চিন্তা শুরু করে দিয়েছেন। আরও সময় দেওয়া হবে না অন্য কোনও সিদ্ধান্ত, তা নিয়ে পর্যালোচনা শুরু করেছেন তদন্তকারীরা। যদিও সব কিছুই নির্ভর করছে রাজীব কুমারের উপর। তিনি কি করেন সেদিকেই তাকিয়ে সিবিআইও পালটা ঘুঁটি সাজাবে বলেই সূত্রে জানা যাচ্ছে।