কলকাতা: বলেছিলেন যাব ভোট দিতে৷ সেই কথা সোশ্যাল সাইটে ছড়িয়ে পড়েছিল৷ হু হু করে হয়ে যায় ভাইরাল৷ মুহূর্তে বাম কর্মীরা তাঁদের নেতাকে অভিনন্দনের বার্তায় ভরিয়ে দিয়েছিলেন৷ রবিবার দিনভর যখন একের পর কেন্দ্রে প্রবল উত্তেজনা৷ তখনই রাজ্যের অন্যতম রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ভোট না দেওয়ার সংবাদ এসেছে৷

জানা গিয়েছে অসুস্থ থাকায় ভোট দিতে পারেননি এই বর্ষিয়ান সিপিএম নেতা৷ পাম অ্যাভিনউয়ের ফ্ল্যাটেই রইলেন তিনি৷ নাকে অক্সিজেন নল নিয়ে থাকেন বুদ্ধবাবু৷ সিওপিডি-তে আক্রান্ত তিনি৷ বেশিক্ষণ কথা বলতেও কষ্ট হয়৷ এই অবস্থায় দলেরই ব্রিগেড সমাবেশে হাজির হয়েছিলেন৷ অসুস্থ বুদ্ধবাবুকে দেখতে চেয়ে বামেদের সেই ‘ভরা ব্রিগেড’ আন্দোলিত হয়ে উঠেছিল৷ তবে বুদ্ধবাবু মঞ্চে উঠতে পারেননি৷ শুধু জানিয়েছিলেন এই ভিড় যেন ভোট মেশিনে গিয়ে পড়ে সেটাই দেখতে হবে নেতাদের৷

কলকাতা দক্ষিণ কেন্দ্রের ভোটার বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য৷ এই কেন্দ্রের বাম প্রার্থী নন্দিনী মুখোপাধ্যায় তাঁর প্রচারে বুদ্ধবাবুর সঙ্গে দেখা করে এসেছিলেন৷ সেই পরে বুদ্ধবাবু জানান, লোকসভা নির্বাচনে ভোট দিতে যাবেন৷ যাবতীয় জল্পনা কাটল৷ অসুস্থ হয়ে ঘরেই থাকলেন তিনি৷

বাম জমানার প্রথম অর্থমন্ত্রী অশোক মিত্র জানিয়েছিলেন-হামাগুড়ি দিয়েও ভোট দিতে যাব৷ অসুস্থ অশোকবাবু ভোট দিয়ে এসেছিলেন৷ তিনি প্রয়াত৷ জ্যোতি বসুর জমানায় এই প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ ও মন্ত্রীর সেই উক্তি পরিবর্তনের জমানায় আলোড়ন ফেলেছিল৷