আদ্দিস আবাবা: দেহরক্ষীরা গুলি করে করল খোদ ইথিওপিয়ার সেনা প্রধানকেই৷ ঘটনার পর থেকেই নতুন করে দেশটিতে জাতিগত সংঘর্ষ শুরু হতে পারে বলেই আশঙ্কা৷ বিবিসি জানাচ্ছে, সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল সিয়ারে মেকননেনকে খুনের কথা রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারের মাধ্যমে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ। প্রথমদিকে সেনা প্রধানের মৃত্যু নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়, পরে একাধিক সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে মৃত্যু হয়েছে সেনা প্রধানের৷

ইথিওপিয়া সরকার গোটা ঘটনায় উদ্বিগ্ন৷ প্রধানমন্ত্রী আবির প্রেস সচিব নেগুসু তিলাহুন রয়টার্সকে জানান, দেশের আমহারা এলাকায় ‘একটি সেনা অভ্যুত্থানের চেষ্টা হয়েছিল’। তার কয়েক ঘণ্টা পর সেনাবাহিনী প্রধান গুলিবিদ্ধ হন। ষড়যন্ত্রকারীরা আমহারা প্রদেশ সরকারের প্রধান আম্বাকিউ প্রধানমন্ত্রী মেকননেনকে ক্ষমতাচ্যুত করার উদ্যোগ নিয়েছিল। এ ঘটনার পর ষড়যন্ত্রকারীদের ধরতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে৷ঘটনার পর ইথিওপিয়ায় ইন্টারনেট বন্ধ রাখা হয়েছে। ঘটনাস্থলের বাসিন্দারা ব্যাপক গোলাগুলির শব্দ শোনার কথা জানিয়েছেন।রাজধানী আদ্দিস আবাবাতেও গোলাগুলির শব্দ শোনা গিয়েছে?৷ সেখানকার মার্কিন দূতাবাসের মাধ্যমেও জারি হয়েছে সতর্কতা৷ এমন প্রতিবেদন তারা পেয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।