নয়াদিল্লি: পাকিস্তানি চর চক্রে এবার জড়িয়ে গেল ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর নাম। এই চক্রে ইসরোর এক আধিকারিকের নাম জড়িয়ে গিয়েছে। সেই সূত্রে ইসরোর আধিকারিকদের জেরা করার কথা ভাবছে দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ।

চর চক্রে মূল অভিযুক্ত পাকি হাই কমিশনের অফিসার মাহমুদ আখতারকে জেরা করে ওই ইসরোর আধিকারিকের নাম পাওয়া গিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার পাক চর চক্রে যুক্ত হিসেবে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

দিল্লি পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতের কাছ থেকে ভারতীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের বহু গুরুত্বপূর্ণ নথি পাওয়া গিয়েছে৷আশঙ্কা করা হচ্ছে এই সমস্ত নথি পাক গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের হাতে তুলে দেওয়ার জন্যই যোগাড় করেছে ওই ব্যক্তি৷ঘটনার পেছনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কোনও ভেতরের ব্যক্তি যুক্ত রয়েছে বলেও অনুমান। কারণ অন্তর্ঘাত না হলে সেই সমস্ত নথি ওই ব্যক্তির কাছে পৌঁছনো অসম্ভব বলেই মনে করছে তদন্তকারীরা৷সূত্রের দাবি, বেশ কয়েকমাস ধরে মেহমুদ আখতারের ওপর নজর রাখা হচ্ছিল। তবে তাঁর গ্রেফতারির নির্দেশ দিতে প্রথমে কিছুটা দ্বিধাগ্রস্থ ছিল কেন্দ্র। জানা গিয়েছে, মেহমুদ তাঁর বিভিন্ন স্থানীয় নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে ভারতের প্রতিরক্ষা ও অন্য বিষয় বিভিন্ন স্পর্শকাতর তথ্য সংগ্রহ করেছেন।