মস্কো:  লাগাতার মার্কিন চাপ। কিন্তু তা গ্রাহ্য করতে নারাজ তুরস্ক। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ভয়ঙ্কর আমেরিকার চাপ রয়েছে। কিন্তু দেশের পক্ষে রাশিয়ার কাছ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ কেনার চুক্তি থেকে সরে আসা সম্ভব নয়। আজ মঙ্গলবার সকালে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন এরদোগান। সেখানে তিনি বলেন, মার্কিন প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কেনার প্রস্তুাব রাশিয়ার এস-৪০০ এর চেয়ে কোনও ভাবেই ভালো হবে না।

মস্কোর সঙ্গে চুক্তি প্রসঙ্গে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, এরইমধ্যে আমরা নিশ্চিত কিছু পদক্ষেপ নিয়েছি। কাজেই এক্ষেত্রে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং সেখান থেকে ফিরে আসা আমাদের পক্ষে একেবারেই অসম্ভব।

আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই তুরস্ককে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা হস্তান্তর শুরু করবে রাশিয়া। মস্কোর সঙ্গে আঙ্কারা এই চুক্তি স্বাক্ষরের পর ওয়াশিংটন ও তুরস্কের ন্যাটো মিত্র দেশগুলো আঙ্কারাকে হুঁশিয়ারি দিয়ে আসছে। তাদের মতে, ন্যাটোর প্রতিরক্ষা নেটওয়ার্কের সঙ্গে রাশিয়ার এই আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে না। তারা আরও বলছে, ন্যাটোর শত্রু দেশ রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্রয় ন্যাটো জোটকে হুমকির মুখে ঠেলে দেবে।

এরদোগান বলেন, এই ইস্যুতে একসঙ্গে কাজ করতে একটি ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে তুরস্ক। মার্কিন প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা ক্রয়ের প্রস্তাব নিয়ে ওয়াশিংটনের সঙ্গে তুরস্ক আলাপ করেছে বলেও তিনি জানান। এরদোগান বলেন, কিন্তু এস-৪০০ ক্রয় নিয়ে রাশিয়া আমাদের যতটা ভালো প্রস্তাব দিয়েছে, আমেরিকার পক্ষ থেকে তেমনটা আসেনি।