লন্ডন: দীর্ঘ জল্পনার পর অবশেষে জুনের মাঝামাঝি সময় থেকে শুরু হচ্ছে করোনা পরবর্তী ইংলিশ প্রিমিয়র লিগ। ব্রিটিশ মিডিয়ায় রিপোর্ট অনুযায়ী আগামী ১৭ জুন থেকে ফের বল গড়াবে ইংলিশ প্রিমিয়র লিগে। তবে প্রোটোকল মেনে দর্শকহীন স্টেডিয়ামেই অনুষ্ঠিত হবে লিগের অবশিষ্ট ম্যাচগুলি।

ব্যক্তিগত অনুশীলন পর্ব পেরিয়ে বুধবার দলগত অনুশীলনের পক্ষে সায় দিয়েছিল প্রিমিয়র লিগের ২০টি ক্লাব। এরপর ২৮মে অর্থাৎ বৃহস্পতিবার ফের লিগ চালুর বিষয়ে আলোচনার জন্য এবং ব্রডকাস্টিংয়ের বিষয়ে আলোচনার জন্য ফের বৈঠক করে ক্লাবগুলি। সেখানেই ১৭ জুন থেকে লিগ পুনরায় শুরু করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে রিপোর্টে প্রকাশ।

বিবিসি’র রিপোর্ট অনুযায়ী করোনা পরবর্তী সময় অ্যাস্টন ভিলা বনাম শেফিল্ড ইউনাইটেড ম্যাচ দিয়ে চালু হবে ইপিএল। ওই একইদিনে অন্য খেলায় মুখোমুখি হবে যুযুধান দুই প্রতিপক্ষ ম্যাঞ্চেস্টার সিটি ও আর্সেনাল। গত ৯ মার্চ অ্যাস্টন ভিলার বিরুদ্ধে লেস্টার সিটির ৪-০ গোলে জয় দিয়ে স্থগিত হয়েছিল ইপিএল। যদিও লিগ স্থগিত হওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয় ১৩ মার্চ। অর্থাৎ, তিন মাসেরও বেশি সময় পর পুনরায় চালু হচ্ছে ইংল্যান্ডের প্রিমিয়র ডিভিশন ফুটবল লিগ।

গত মরশুমে ইউরোপ সেরা হওয়ার পর চলতি মরশুমে ইংলিশ প্রিমিয়র লিগ জয়ের তাল ঠুকছে জুর্গেন ক্লপ প্রশিক্ষণাধীন লিভারপুল। দ্বিতীয়স্থানে থাকা ম্যাঞ্চেস্টার সিটির থেকে ২৫ পয়েন্টের ব্যবধান তৈরি করে খেতাব থেকে হ্যান্ডশেকিং দূরত্বে দাঁড়িয়ে লিভারপুল। ৩০ বছর ইংল্যান্ড সেরা হওয়ার অপেক্ষায় প্রহর গুনছে অ্যানফিল্ড।

করোনার প্রকোপ কিছুটা শিথিল হলে প্রোটোকল মেনে চলতি মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে অনুশীলনে নামার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে ক্লাবগুলি। যদিও অনুশীলন চলাকালীন তিন দফা করোনা পরীক্ষায় বিভিন্ন ক্লাবের ফুটবলার, সাপোর্ট স্টাফ সহ ১২ জনের শরীরে করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে।

তাদের ৭দিনের আইসোলেশনে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে লিগ কর্তৃপক্ষ। এর আগে গত ১৬মে থেকে প্রথম মেজর সকার লিগ হিসেবে করোনা পরবর্তী সময় চালু হয়েছে বুন্দেসলিগা। সবিকিছু ঠিকঠাক চললে সেভিয়া ডার্বির মধ্যে দিয়ে ১১জুন শুরু হতে পারে লা লিগা। এছাড়াও লিগ শুরু করার অপেক্ষায় রয়েছে সিরি-‘এ’ কর্তৃপক্ষ।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প