নয়াদিল্লি:সংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মীর কাছ থেকে নিয়মমাফিক যা পিএফ বাবদ টাকা কাটা হয় তার চেয়ে কম কেটে কর্মীদের হাতে পাওয়া বেতন বাড়িয়ে দেওয়া যেতে পারে৷ সেক্ষেত্রে অবশ্য ওই কর্মীর অবসরকালীন সঞ্চয় কমে যাবে৷

এই বিষয়ে সোশ্যাল সিকিউরিটি কোড বিল ২০১৯ এই সপ্তাহেই সংসদে পেশ করা হবে ৷ যারফলে কর্মীদের নিয়ম অনুসারে যে ১২ শতাংশ পিএফ বাবদ টাকা জমা দিতে হয় এরফলে তার চেয়ে কম টাকা জমা দিলেও চলবে ৷ যদিও মালিককে নিয়ম অনুসারে ১২ শতাংশ হারে পিএফএর টাকা জমা করতেই হবে ৷

বর্তমানে কর্মী এবং মালিক উভয়ই মূল বেতনের ( বেসিক স্যালারি) ১২ শতাংশ হারে প্রতি মাসে পিএফের টাকা জমা করে থাকে৷ এই নিয়ম সব ক্ষেত্রের জন্য এক রকম হবে না ৷ সরকার সম্ভবত কিছু ক্ষেত্রে যেমন এমএসএমই, টেক্সটাইল এবং স্টার্টআপ সংস্থায় এই নয়া নিয়ম অনুমোদন করতে পারে বলে দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে৷

সেক্ষেত্রে কর্মীরা ক্ষেত্র বিশেষে ৯শতাংশ থেকে ১২ শতাংশ পিএফ বাবদ জমা করতে পারবে৷ এই নমনীয়তা রাখার ফলে কর্মীরা হাতে পাওয়া বেতনের পরিমাণ বেড়ে যাবে ৷ গত পাঁচ বছর ধরে পরিকল্পনা করলেও এখনও পর্যন্ত এই বিলটি সংসদে পেশ করা হয়নি৷

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও