একাই চিলির রক্ষণ নাড়িয়ে দিলেন স্যাঞ্চো- ছবি শশী ঘোষ

কলকাতা: দুটো গোল, সঙ্গে একটা অ্যাসিস্ট, অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে শুরুতেই স্যাঞ্চো ম্যাজিক! ১৭ বছরের এই মিডফিল্ডারের জোড়া গোলেই ওয়ান ওয়ে ট্রাফিক ম্যাচে চিলির বিরুদ্ধে চার গোলে জিতে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করল ইংল্যান্ড৷ দ্বিতীয়ার্ধে একাধিক সুযোগ না-হারালে হ্যাটট্রিক সেরে ফেলতে পারতেন বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের যোগ দেওয়া এই খুদে তারকা৷ স্যাঞ্চো ছাড়াও বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে একটি করে গোল হাডসন ও অ্যাঞ্জেল গোমসের৷ চার গোলে ম্যাচ জিতে খেতাব জয়ের অন্যতম দাবী পেশ করল টিম ইংল্যান্ড৷

আরও পড়ুন- কলকাতার ফুটবলপ্রেমে মুগ্ধ বিদেশিরা

ভারতে বিশ্বকাপ খেলতে আসাটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল জর্ডন স্যাঞ্চোর৷ চলতি গ্রীষ্মেই ম্যানচেস্টার সিটি ছেড়ে আট মিলিয়ন ইউরোয় যোগ দিয়েছেন বরুশিয়া ডর্টমুন্ডে৷ ইংল্যান্ডের এই ‘ওয়ান্ডার কিড’কেই বিশ্বকাপে ছাড়তে নারাজ ছিল জার্মান ক্লাব৷ সেই স্যাঞ্চোই প্রথম ম্যাচে কামাল দেখালেন৷ শুরুতে তার পাশেই এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড৷ হাডসনকে দেওয়া পাসটাই বুঝিয়ে দিয়েছিল কেন স্যাঞ্চোকে বিশ্বকাপে পেতে মরিয়া হয়ে ঝাঁপিয়েছিল ইংল্যান্ড৷ যদিও ভারতে গ্রুপ পর্বের প্রথম তিন ম্যাচেই স্যাঞ্চোর সার্ভিস পাবে স্টিভ কুপার৷ ৭৭ মিনিটে ব্রিটিশ ফুটবলার যখন মাঠ ছাড়লেন কলকাতাবাসী ততক্ষণে তাদের নয়া তারকা পেয়ে গিয়েছে৷

ছবি-শশী ঘোষ

আরও পড়ুন- কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে লড়াই দিতে তৈরি ভারত

কলকাতাবাসীর কাছে ইংল্যান্ড দল অচেনা হলেও এই কদিনেই স্যাঞ্চো নামটার সঙ্গে পরিচয় হয়ে গিয়েছে৷ তাই ম্যাচ শুরুর প্রথম পাঁচমিনিটে ইংল্যান্ড এগিয়ে যেতেই স্যাঞ্চো স্যাঞ্চো বলে রব তুলল যুবভারতী৷

প্রথমার্ধে চিলির অর্ধে প্রথম সুযোগেই গোল পায় ইংল্যান্ড৷ শুরুতে একাধিক গোলমুখি আক্রমণ করে শুরুটা ভালই করেছিল চিলি৷ এরপর হঠাৎই অঘটন৷ স্যাঞ্চোর দুরন্ত পাসকে দিশা দিয়ে গোল করেন হাডসন৷ তাঁর গোলেই লিড নেয় থ্রি লায়ান্স৷ আট মিনিটে আরও একটা গোলের সুযোগ তৈরি করলেও বল জালে রাখতে পারেনি রুনির উত্তরসূরিরা৷ গোল হজম করলেও ৩৫ মিনিটে কামান দাগা শটে অনবদ্য চেষ্টা করেছিলেন চিলির গুয়েরেরো৷অল্পের জন্য চিলির মিডিও-র শট বারপোস্টের ওপর দিয়ে বেড়িয়ে যায়৷

আরও পড়ুন- রোমাঞ্চ ঘেরা যুবভারতীতে যুব বিশ্বকাপ

প্রথমার্ধে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করলেও দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য কোন প্রতিরোধই গড়ে তুলতে পারেনি লাতিন আমেরিকার দল৷ ব্র্যাভো-ভার্গাসদের জুনিয়রদের নিয়ে একপ্রকার ছেলেখেলা করল ইংল্যান্ড৷ শুরুতেই ফের স্যাঞ্চো ম্যাজিকে এগিয়ে যায় ব্রিটিশবাহিনী৷৫১ মিনিটে রিয়ানের শট বাঁচাতে গিয়ে চিলির গোলকিপার সমস্যায় পড়েন৷ সেই সুযোগেই ম্যাচের প্রথম গোল করেন স্যাঞ্চো৷ ৬১ মিনিটে ফের জর্জের গোলে নিজের দ্বিতীয় গোল সেড়ে ফেলেন এই কিড৷ ম্যাচের শেষ ও চতুর্থ গোল ৮১ মিনিটে৷ পরিবর্ত প্লেয়ার হিসেবে মাঠে নেমে ফ্রি-কিকে গোল করেন অ্যাঞ্জেস গোমস৷ ম্যান ইউ এর জার্সিতে ইপিএলের শেষ মরশুমে রুনির পরিবর্ত হিসেবে মাঠে নেমেছিলেন৷ এদিন দেশের জার্সিতে পরিবর্ত হিসেবে নেমে গোল করলেন বছর ১৭ এর মিডিও৷

মাঠ ছাড়ার সময় দর্শকদের ফ্লাইং কিস দিচ্ছেন স্যাঞ্চো৷ ছবি- শশী ঘোষ

চলতি বছরেই অল্পের জন্য অনূর্ধ্ব-১৭ ইউরো হাতছাড়া করেছে জুনিয়র ইংল্যান্ড দল৷ স্পেনের কাছে টাইব্রেকারে হেরে রানার্স হয় ইংল্যান্ড৷তবে বিশ্বকাপ অভিযানের শুরুতেই চার গোল করে নতুন করে আশা জাগাল থ্রিলায়ান্সের জুনিয়ররা৷ চলতি বছরে অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপের ট্রফি ঘড়ে পুড়েছে ইংল্যান্ড৷ এদিন প্রথম ম্যাচ দেখে মনে হল অনূর্ধ্ব-১৭ দলও বিশ্বকাপ জয়ে দৃড়প্রতিজ্ঞ৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV