জোহানেসবার্গ: আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যাওয়ার মুখে দর্শকের সঙ্গে মৌখিক ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ার জের। শাস্তিস্বরূপ জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চতুর্থ টেস্টে ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ কাটা গেল ইংরেজ অল-রাউন্ডার বেন স্টোকসের। সঙ্গে কাটা গেল একটি ডিমেরিট পয়েন্ট। আইসিসি’র কোড অফ কন্ডাক্টের লেভেল ১ অপরাধে দন্ডিত করা হয়েছে স্টোকসকে।

আন্তর্জাতিক ম্যাচ চলাকালীন আপত্তিকর শব্দ ব্যবহার করার অভিযোগে শাস্তিস্বরূপ এই ডিমেরিট পয়েন্ট এবং একইসঙ্গে ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ কাটা গেল ইংরেজ অল-রাউন্ডারের। ম্যাচ রেফারি অ্যান্ডি পাইক্রফটের এই শাস্তির নিদান যদিও মাথা পেতে নিয়েছেন স্টোকস। উল্লেখ্য, আইসিসি’র নিয়মানুসারে ২৪ মাস অর্থাৎ এক বছর সময়কালের মধ্যে আর তিনটি ডিমেরিট পয়েন্ট কাটা গেলে এক ম্যাচ সাসপেন্ড হতে হবে ইংল্যান্ড অল-রাউন্ডারকে।

আরও পড়ুন: আলেজান্দ্রোর জার্সি নিয়ে সেলিব্রেশন লাল-হলুদ ফুটবলারদের, সম্মানে আপ্লুত স্প্যানিশ বস

এদিকে জো’বার্গে সিরিজের নির্ণায়ক টেস্টে বড়সড় অ্যাডভান্টেজ ইংল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে থ্রি-লায়ন্সদের ৪০০ রানের জবাবে দ্বিতীয় দিনের শেষে ৮৮ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে দক্ষিণ আফ্রিকা। দশম উইকেটে মার্ক উড ও স্টুয়ার্ট ব্রডের রেকর্ড ৮২ রানের পার্টনারশিপে ভর করে জো’বার্গে প্রথম ইনিংসে ৪০০ রানে তাদের ইনিংস শেষ করে ইংল্যান্ড। ২৮ বলে ঝোড়ো ৪৩ রান করে ব্রড আউট হলেও ৩৫ রানে অপরাজিত থেকে যান মার্ক উড। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে বল হাটে সবচেয়ে সফল অ্যানরিচ নর্তজে দখল করেন ৫ উইকেট।

আরও পড়ুন: টোকিওয় দলগত ইভেন্টে নেই দেশের মহিলা প্যাডলাররা

এরপর বল হাতেও আগুন জোহানেসবার্গের পিচে আগুন ঝরান উড। নেন ৩ উইকেট।  দ্বিতীয় শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে মাত্র ৮৮ রান তুলেছে প্রোটিয়ারা। ইংরেজ বোলারদের সামনে সেই অর্থে সফল হতে পারেননি দক্ষিণ আফ্রিকার কোনও ব্যাটসম্যানই। ৪৪ বলে সর্বোচ্চ ৩২ রান করে দিনের শেষে অপরাজিত কুইন্টন ডি’কক। এখনও প্রথম ইনিংসে ৩১২ রানে পিছিয়ে প্রোটিয়ারা। সবমিলিয়ে নির্ণায়ক টেস্টের দ্বিতীয়দিনের শেষে যা অবস্থা তাতে সিরিজে আপাতত ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থাকা ইংল্যান্ডের সিরিজ জয় কার্যত নিশ্চিতই বলা যায়।