প্রাগ: জয় পেলেই নিশ্চিত হয়ে যেতে পারত আগামী বছর ইউরোর মূলপর্বের টিকিট। কিন্তু কোয়ালিফায়ারের পঞ্চম ম্যাচে হেরে অপেক্ষা দীর্ঘায়িত হল ইংল্যান্ডের। শনিবার ইউরো যোগ্যতা অর্জন পর্বের ম্যাচে চেক প্রজাতন্ত্রের কাছে ১-২ গোলে হেরে বসল গ্যারি সাউথগেটের দল।

এদিন ম্যাচের মাত্র ৫ মিনিটে অধিনায়ক হ্যারি কেনের পেনাল্টি গোলে এগিয়ে গিয়েও শেষরক্ষা হল না। খেলা শেষ হবার মিনিট পাঁচেক আগে দেনেক ওন্দ্রাসেকের গোলে ম্যাচ হারতে হল থ্রি-লায়ন্সদের। এই হারের ফলে ২০০৯ পর প্রথমবার বিশ্বকাপ কিংবা ইউরোর যোগ্যতা অর্জন পর্বের কোনও ম্যাচে পরাজিত হল ১৯৬৬ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। শেষবার ২০০৯ ইউক্রেনের কাছে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের ম্যাচে পরাজিত হয়েছিল ইংল্যান্ড।

এদিন হ্যারি কেনের গোলে ইংল্যান্ড ম্যাচে এগিয়ে যাওয়ার মিনিট চারেকের মধ্যেই ম্যাচে সমতায় ফেরে চেক প্রজাতন্ত্র। ৯ মিনিটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরান জাকুব ব্রাবেচ। এরপর ৮৫ মিনিটে আন্তর্জাতিক কেরিয়ারের প্রথম গোল করে ২০১৮ বিশ্বকাপ সেমিফাইনালিস্টদের পরাজয় নিশ্চিত করেন সুপার সাব ওন্দ্রাসেক। ম্যাচের পর ইংল্যান্ড কোচ গ্যারি সাউথগেট জানান, ‘আমরা প্রত্যাশা অনুযায়ী খেলতে পারিনি। ফল যা হবার তাই হয়েছে।’

তবে ম্যাচ হারলেও প্রথম চার ম্যাচ জিতে এখনও গ্রুপ-‘এ’র শীর্ষেই রয়েছে ইংল্যান্ড। ৫ ম্যাচ থেকে তাঁদের সংগৃহীত পয়েন্ট ১২। পাশাপাশি এদিন জয়ের ফলে ইংল্যান্ডের চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলে সমসংখ্যক পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে রইল চেক প্রজাতন্ত্র। একমাত্র দেশ হিসেবে গ্রুপ-‘আই’ থেকে ইতিমধ্যে ইউরোর মূলপর্বের যোগ্যতা অর্জন করেছে বেলজিয়াম।

এদিকে কোয়ালিফায়ারের অন্যান্য ম্যাচে এদিন জয় পেল বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ও ইউরোর ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল। পেনাল্টি থেকে অলিভিয়ের জিরুর করা একমাত্র গোলে এদিন আইসল্যান্ডকে হারাল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ৭ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ-‘এইচ’র দ্বিতীয়স্থানে গ্রিজম্যানরা। অন্যদিকে ঘরের মাঠে লুক্সেমবর্গকে ৩-০ গোলে হারিয়ে মূলপর্বের দিকে কিছুটা এগোল পর্তুগাল। গোল পেলেন বার্নার্দো সিলভা, ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ও গন্সালো গুয়েদেস। ৫ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত গ্রুপ-‘বি’র দ্বিতীয়স্থানে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা।

উল্লেখ্য, প্রত্যেক গ্রুপের প্রথম দুই স্থানাধিকারী সরাসরি মূলপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। বাকি চারটি দলের টিকিট কনফার্ম হবে প্লে-অফের মাধ্যমে।