লন্ডন: অ্যাশেজ খেতাব পুনরুদ্ধার করতে না পারলেও ওভাল টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে সিরিজে সমতা ফেরাল ইংল্যান্ড৷ ওভালে জয়ের জন্য ৩৯৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে শেষ ইনিংসে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়া অল-আউট হয়ে যায় ২৬৩ রানে৷ ইংল্যান্ড ১৩৫ রানের ব্যবধানে ম্যাচ জেতায় পাঁচ ম্যাচের সিরিজ শেষ হয় ২-২ সমতায়৷

উল্লেখ্য, এজবাস্টনে অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে অস্ট্রেলিয়া ২৫১ রানে জয় তুলে নেয়৷ লর্ডসের দ্বিতীয় টেস্ট ড্র হয়৷ লিডসের তৃতীয় টেস্ট ইংল্যান্ড জেতে ১ উইকেটের সংক্ষিপ্ত ব্যবধানে৷ ম্যাঞ্চেস্টারে চতুর্থ টেস্টে ইংল্যান্ডকে ১৮৫ রানে পরাজিত করে অস্ট্রেলিয়া৷ এবার ওভালে সিরিজের শেষ টেস্টে ইংল্যান্ড দাপুটে জয় তুলে নেয়৷ সিরিজ ড্র হওয়ায় গতবারের সিরিজ জয়ী অস্ট্রেলিয়া অ্যাশেজ ট্রফি নিজেদের দখলেই রেখে দেয়৷

আরও পড়ুন: টানা সাতটি ছয় হাঁকালেন নবি-জাদরান, ত্রিদেশীয় সিরিজে জিম্বাবোয়েকে হারাল আফগানিস্তান

ওভালে টস জিতে ইংল্যান্ডকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায় অস্ট্রেলিয়া৷ প্রথম ইনিংসে ২৯৪ রান তুলে অল-আউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড৷ পালটা ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়া তাদের প্রথম ইনিংস শেষ করে ২২৫ রানে৷ ৬৯ রানের লিড নেওয়া ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে অল-আউট হয় ৩২৯ রানে৷ শেষে অজিরা আড়াইশো রানের গণ্ডি টপকেই রণে ভঙ্গ দেয়৷

দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে একা লড়াই চালান ম্যাথিউ ওয়েড৷ ১১৭ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে আউট হন তিনি৷ ১৬৬ বলের ইনিংসে ১৭টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন ওয়েড৷ এছাড়া মিচেল মার্শ ২৪, স্টিভ স্মিথ ২৩, টিম পেইন ২১, ল্যাবুশেন ১৪, ওয়ার্নার ১১ ও পিটার সিডল অপরাজিত ১৩ রান করেন৷

আরও পড়ুন: বৃষ্টিতে ভেস্তে গেল প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে টিম ইন্ডিয়ার প্রথম টি-২০

স্টাুয়ার্ট ব্রড ও জ্যাক লিচ শেষ ইনিংসে ইংল্যান্ডের হয়ে ৪টি করে উইকেট নেন৷ শেষ দিনে পার্টটাইম অফ-স্পিনে ২টি উইকেট তুলে নেন জো রুট৷ প্রথম ইনিংসে ৬টি উইকেট নেওয়ার সুবাদে ম্যাচের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন জোফ্রা আর্চার৷