স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: দামোদরে জাল দিয়ে মাছ ধরতে গিয়ে তলিয়ে গেল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের এক ছাত্র। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের বড়শুল এলাকায়। ওই ছাত্রের নাম বিপুল মিত্র। বাড়ি বড়শুলের অন্নদাপল্লী এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মানকড়ের কনাদ পলিটেকনিক ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ইলেকট্রিক্যাল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। বাবা দীপক মিত্র বড়শুলের জুটমিলের শ্রমিক। এলাকার বাসিন্দা অম্বিকা দাস জানিয়েছেন, রবিবার সকাল প্রায় সাতটা নাগাদ বিপুল এবং তার চার বন্ধু মিলে কলেজে ছুটি থাকায় দামোদরে মাছ ধরতে যায়। মাছ ধরার সময় বিপুলের এক বন্ধু বালি খাদানের কাছে একটি গর্তে পরে যাচ্ছিল৷বন্ধুকে বাঁচাতে গিয়ে বিপুলও ওই গর্তে পরে গিয়ে তলিয়ে যায়।

প্রাথমিক ভাবে বন্ধুরা খোঁজাখুজি করে৷ কিন্তু খবর না পাওয়ায় এলাকার বাসিন্দাদের জানায়। এরপর ঘটনাস্থলে শক্তিগড় থানার পুলিশ ও বিডিও অদিতি বসু সহ এলাকার জনপ্রতিনিধিরা আসেন। তলিয়ে যাওয়া ছাত্রের খোঁজ পেতে দ্রুততার সঙ্গে দুর্গাপুর থেকে ডুবুরি নিয়ে এসে

এদিন দুপুর থেকেই তল্লাশি শুরু করে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর। এখনও দেহ উদ্ধার হয়নি বলে জানা গিয়েছে।স্থানীয়দের দাবি, অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলনের ফলে বিভিন্ন জায়গায় দামোদরে গর্তের গভীরতা বেড়ে যাওয়ায় মরণ ফাঁদ তৈরি হয়েছে।সেই গভীরতা বুঝতে না পারায় এদিনের ঘটনা ঘটেছে।