নয়াদিল্লি: জনপ্রিয় পাকিস্তানি গায়ক রাহাত ফতে আলি খানকে ইডির নোটিশ৷ তাঁর বিরুদ্ধে বিদেশী মুদ্রা পাচারের অভিযোগ রয়েছে৷ ফরেন এক্সচেঞ্জ ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্ট বা ফেমার আওতায় তাঁকে নোটিশ পাঠানো হয়েছে বলে ইডি সূত্রে খবর৷

গত তিন বছর ধরে তিনি এই বিদেশী মুদ্রা পাচারের কাজে যুক্ত৷ এমনটাই প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে৷ জানা গিয়েছে, জনপ্রিয় এই পাকিস্তানি গায়কের বিরুদ্ধে ভারতীয় মুদ্রায় ২ কোটি বিদেশী মুদ্রা পাচারের অভিযোগ রয়েছে৷ অভিযোগ প্রমাণিত হলে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে রাহত ফতে আলি খানকে৷

২০১১ সালে রাহত ফতে আলি খান ও তাঁর এক সহযোগী মারুফ আলি খানকে ইন্দিরা গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে আটক করে ডিআরআই (ডিরেক্টোরেট অফ রেভেনিউ ইনটেলিজেন্স)৷ তাদের কাছে ১.২৪ লক্ষ অঘোষিত মার্কিন ডলার পাওয়া যায়৷ এত মার্কিন ডলারের উৎস কী তা জানতে চাওয়া হয়৷

জবাবে রাহত দাবি করেন, তিনি কোনও অনৈতিক কাজ করেননি৷ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের জন্য বড় গ্রুপ নিয়ে তাদের বাইরে যেতে হয়৷ তাই এত টাকা তাদের সঙ্গে রাখতে হয়েছে৷ সূত্রের খবর, গায়কের জবাবে সন্তুষ্ট হয়নি ডিআরআই৷ এরপর ২০১৪ সালে ফেমা মামলায় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে ইডি৷