ইসলামাবাদ: পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশে জারি করতে হবে শরিয়তি আইন৷ এমনই ফতোয়া জারি করলেন এক মুসলিম ধর্মগুরু৷ তাঁর বক্তব্য এক সপ্তাহের এই আইন জারি করা উচিত প্রশাসনের এই মর্মে সরকারকে এক সপ্তাহের সময়ও দিয়েছেন সেই ধর্মগুরু৷

আস্তান এ আলিয়া সিয়াল শরিফের পীর হামিদউদ্দিন সিয়ালভির দাবি তিনি প্রশাসনকে এক সপ্তাহের সময় দিয়েছে, যাতে এই সময়সীমার মধ্যে তারা শরিয়তি আইন জারি করতে পারে৷ যদি তা না মানা হয়, তবে লাগাতার আন্দোলন চালাবেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরা৷ পঞ্জাব জুড়ে চলবে সেই আন্দোলন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন হামিদউদ্দিন৷

সাধারণ আইনে প্রদেশের বিভিন্ন জায়গায় অরাজকতা বেড়ে চলেছে বলে অভিযোগ করেছেন ধর্মগুরু৷ তাঁর আরও দাবি, ধর্ষণ বাড়ছে, অথচ অপরাধীর শাস্তি হচ্ছে না৷ এখানে আইনের শাসন নেই বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি৷ তাই শরিয়তি আইন বলবৎ করার পক্ষে যুক্তি দিয়েছেন তিনি৷

পঞ্জাব প্রদেশের আইনমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহের পদত্যাগ দাবি করেছেন ওই ধর্মগুরু৷ পাকিস্তান জুড়ে শরিয়তি আইন জারি করা না হলে আগুন জ্বলবে বলে কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি৷