মুম্বই: লকডাউনের সময় যদি ঋণ পরিশোধের জন্য ইএমআই দিয়ে থাকেন তাহলে তিনি ব্যাংকের কাছ থেকে ৫ নভেম্বরের মধ্যে একপ্রকার দিওয়ালি গিফট পেতে পারেন। লকডাউনের সময় যারা ঋণের কিস্তি শোধ করেছিলেন তারা সেটা ক্যাশবাক পাবেন ব্যাংকের কাছ থেকে।

৫ নভেম্বরের মধ্যে এই ক্যাশব্যাকের অর্থ ব্যাংক গুলি দেবে বলে জানা গিয়েছে। কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, দু কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণের ক্ষেত্রে গত ছয় মাসের মরাটরিয়ামের সময় সুদের উপর সুদ যা ধার্য হয়েছিল তা মুকুব করা হবে।

এরফলে বাড়ি গাড়ি ছোট মাঝারি ব্যবসা ও শিল্পের জন্য ঋণ নেওয়া গ্রাহকরা এমনকি যাদের ক্রেডিট কার্ডে বকেয়া রয়েছে এর সুবিধা পাবে। ১ মার্চ থেকে ৩১ পর্যন্ত এই ছয় মাস ঋণগ্রহীতারা এর সুবিধা পাবেন।

শর্ত অনুসারে যোগ্য ঋণগ্রহীতারা এক্ষেত্রে তাদের অ্যাকাউন্টে ক্যাশব্যাক এর সুবিধা পাবে যা ৫ নভেম্বর তাদের অ্যাকাউন্টের ঢুকে যাবে।

উৎসবের মরশুমে এটা অনেকের কাছেই একেবারে দিওয়ালি গিফট হিসেবে হয়ে উঠবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I