স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা : বাংলা পক্ষের সুরে সুর মেলাচ্ছেন বহু কবি সাহিত্যিক। সবার দাবী একটাই, বিদ্যাসাগরের জন্মদিনকে ‘জাতীয় শিক্ষক দিবস’ হিসেবে ঘোষণার করতে হবে। তালিকায় নাম বেশ লম্বা এবং গুরুত্বপূর্ণ। বাংলা পক্ষের এই দাবীকে পূর্ণ সমর্থন করেছেন কবি জয় গোস্বামী, কবি সুবোধ সরকার, কবি মৃদুল দাসগুপ্ত, কবি মন্দাক্রান্তা সেন, অধ্যাপক তপোধীর ভট্টাচার্য প্রমুখ।

কবি জয় গোস্বামী বাংলাপক্ষকে জানিয়েছেন, ‘এই উদ্যোগ অত্যন্ত ভালো। আমার পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। কোনও আবেদন পত্র জমাদিলে আমি সেখানে স্বাক্ষর দেব’। একইসঙ্গে কবি মৃদুল দাসগুপ্ত তাঁদের জানিয়েছেন , ‘আমার এই উদ্যোগে সম্পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। এই উদ্যোগ পূর্ণতা পাক এটা আমি চাই।’

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ শিলিগুড়ি থেকে পূর্ব মেদিনীপুর পর্যন্ত ২১টি জেলায় পণ্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর মহাশয়ের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিগত বছরগুলির মতোই এই বছরও ‘জাতীয় শিক্ষক সম্মান১৪২৭’ প্রদান করে বাংলা পক্ষ। ওই দিন পূর্ব বর্ধমান: ড: অমল কুমার কুমার, দ: ২৪ পরগনা: আলতাপ শেখ, বাঁকুড়া: বাসুদেব বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা : নির্মল চন্দ্র সাহা, মুর্শিদাবাদ : ডাঃ এম এ রশিদ ,উঃ ২৪ গ্রামীণ: বরুণ বিশ্বাস (মরণোত্তর) , উঃ ২৪ শহরাঞ্চল: চিত্রদীপ সোম, পূঃ মেদিনীপুর: হিমাংশু শেখর বেরা, উঃ ২৪ শিল্পাঞ্চল: রমা ভট্টাচার্য, শিলিগুড়ি : ডঃ প্রকাশ অধিকারী , মালদা: মোঃ মোনিরুল ইসলাম, পশ্চিম বর্ধমান : নিরঞ্জন সর্দার, নদীয়া: ভবতোষ মণ্ডল ও রতন দুলাল নাথ, জলপাইগুড়ি : অনিত কুমার ঘোষ, বীরভূম : শ্যামল মাজি ,হাওড়া: শ্রী কৃষ্ণধন কোলে, হুগলী শিল্পাঞ্চল : প্রবীর কুমার ঘোষ, প: মেদিনীপুর : দীপঙ্কর ষণ্ণিগ্রাহী, পুরুলিয়া : জলধর কর্মকার, কোচবিহার: সামসুজ্জামান মিঞা এবং উত্তর দিনাজপুর: শুভেন্দু মুখার্জী মহাশয়কে এই সম্মান প্রদান করা হয়।

সংগঠনের পক্ষে প্রত্যেক জেলায় এই উপলক্ষে পণ্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর মহাশয়ের মূর্তি, প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করা হয়। পাশাপাশি বিদ্যাসাগরের জন্মবার্ষিকীর আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী মাননীয় নরেন্দ্র মোদী মহাশয়ের কাছে চিঠি দিয়ে পণ্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর মহাশয়ের জন্মদিনটিকে ‘রাষ্ট্রীয় শিক্ষক দিবস’ হিসেবে ঘোষণার আবেদন করা হয়। একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে চিঠি দিয়ে এই দিনটিকে বাংলায় বাঙালি জাতির ‘জাতীয় শিক্ষক দিবস’ ঘোষণা এবং সর্বভারতীয় স্তরে ‘রাষ্ট্রীয় শিক্ষক দিবস’ ঘোষণার বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন করা হয়। সংগঠনের আশা, রাজ্য সরকারের তরফে এই দিনটিকে দ্রুত স্বীকৃতি দেওয়া হবে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।