ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষে এখনও উত্তপ্ত পঞ্চসায়র থানা এলাকা৷ এই ঘটনায় উভয়পক্ষের মোট আটজনকে গ্রেফতার করল পুলিশ৷ বিজেপির সদস্যপদ সংগ্রহ অভিযানকে কেন্দ্র করে রবিবার গড়িয়ার পঞ্চসায়রের শহিদ স্মৃতি কলোনিতে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়৷ সেই সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী আহত হয়েছেন।

গত কয়েকদিন ধরে এলাকা দখলকে কেন্দ্র করে তৃণমূলের সঙ্গে বিজেপি কর্মীদের বচসা চলছিল৷ বিজেপির অভিযোগ, রবিবার সকালে যখন সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলছিল তখন আচমকাই তাদের উপর চড়াও হয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। ব্যাপক মারধর করা হয় বিজেপি কর্মীদের। বিজেপি সমর্থক এক গৃহবধূর অভিযোগ, চুলের মুঠি ধরে তাঁকে মাটিতে ফেলে দেয় দুষ্কৃতীরা। বাড়ির পুরুষদের খোঁজ করে না পেলে তাঁদেরকে শাসানো হয়। বিজেপি সমর্থক এক কেবল মালিকের বাড়ি, অফিস ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ। সামগ্রিক ঘটনায় পুলিশ প্রশাসন নিষ্ক্রিয় বলে অভিযোগে সরব আক্রান্তরা। তাঁদের দাবি পুলিশের সামনেই ঘটে গোটা ঘটনাটি।

যদিও হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। পাল্টা বিজেপির বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ এনেছে শাসকদল। অভিযোগ, সদস্য সংগ্রহ অভিযানের নামে দল বেঁধে এলাকায় ঢোকে বিজেপি কর্মীরা। তারপর বাড়ি বাড়ি গিয়ে হামলা চালায়। দুই দলের সংঘর্ষে এলাকায় উত্তেজনা ছড়ালে ঘটনাস্থানে যায় পঞ্চসায়র থানার পুলিশ। পরিস্থিতি সামাল দিতে না পারায় পরে ঘটনাস্থলে যায় লালবাজার থানার পুলিশ।

পঞ্চসায়র থানার পুলিশ জানিয়েছে, রবিবার রাতে দুপক্ষের মোট আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ সোমবার তাদের আদালতে তোলার কথা৷