এ কথা অনেকেই জানেন না যে ডিম ফ্রিজে রাখার কোন প্রয়োজন নেই। ফ্রিজ ছাড়াই মোটামুটি একমাস পর্যন্ত সতেজ রাখা যায় ডিম, স্বাদ ও পুষ্টিতে বিন্দুমাত্র হেরফের না করেই। কিন্তু এক বছর? হ্যাঁ, আপনি চাইলে ডিমকে সংরক্ষণ করতে পারবেন প্রায় এক বছর পর্যন্ত এবং এই ডিমে দিয়ে তৈরি করতে পারবেন আপনার পছন্দের যে কোন খাবারই। কিন্তু কীভাবে? জেনে নিন দারুণ একটি কৌশল।

ডিম এক বছর পর্যন্ত সংরক্ষণের জন্য আপনাকে ডিম ডিপ ফ্রিজে রাখতে হবে। কিন্তু হ্যাঁ, ডিপ ফ্রিজে আপনি গোটা ডিম রাখতে পারবেন না, এতে ডিমগুলো নষ্ট হবে। ডিপ ফ্রিজে রাখার জন্য ডিমগুলোকে ভেঙে নিন এবং সামান্য নুন দিয়ে গুলে নিন। খুব বেশী ফেটানোর কোন প্রয়োজন নেই। এবার এই ডিম গুলোকে ছোট ছোট বক্সে বা বাটিতে ভরে সংরক্ষণ করুন। সবচেয়ে ভালো হয় বরফ জমাবার ট্রে-তে আইস কিউব রূপে সংরক্ষণ করলে। দুটি আইস কিউব সমান একটি ডিম, ফলে আপনার হিসাব রাখতেও সুবিধা হবে। দুটি কিউব বের করে নিলেই একটি ডিমের প্রয়োজন মিটে যাবে। বরফ জমাবার ট্রে-তে গোলা ডিম রেখে দিন, জমে গেলে কিউব গুলো বের করে নিয়ে প্লাস্টিকের ব্যাগে সংরক্ষণ করুন। এতে জায়গাও বাঁচবে অনেক।

যদি ডিম না ফেটিয়ে রাখতে চান, সেক্ষেত্রে করতে পারেন আরও একটি কাজ। আপনার কাপকেক বা মাফিন তৈরির ট্রে-তে ডিম ভেঙে দিয়ে দিন, দেখবেন কুসুম যেন আস্ত থাকে । ছোট বাটি হলেও চলবে। প্রতিটি ডিমের ওপরে দিয়ে দিন এক চিমটে লবন। এবার একে ডিপ ফ্রিজে রাখুন। জমে গেলে বের করে প্লাস্টিকের ব্যাগে রাখুন। এই ডিম দিয়েও আপনি যে কোন খাবার তৈরি করতে পারবেন। যদি ডিম পোঁচ করতে চান, সেটাও সম্ভব। শুধু ডিম পোঁচ করার আগে এই ডিমকে বাইরে বের করে রাখবেন। সাধারণ তাপমাত্রায় চলে এলে পোঁচ করে নেবেন।