স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ইসলামপুরে ছাত্র খুনের ঘটনা প্রসঙ্গে জাতীয়তাবাদী যুব পরিষদের প্রতিবাদী সাংবাদিক সম্মেলনে উঠে এল বিস্ফোরক দাবি৷ তাঁরা দাবি করেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ফেল করা ডক্টরেট৷’

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত সংবাদপত্রের বিভাগীয় লেখক পুলক নারায়ণ ধর বলেন এই কথা৷ তিনি বলেন “উপাচার্যের সঙ্গে তর্ক বিতর্ক, বাদানুবাদ করেন ‘ব্যর্থ ব্যক্তি’ শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ নৈতিক দিক থেকে বলছি শিক্ষানৈতিক দিক থেকে বলছি তাঁর এই শিক্ষামন্ত্রীর পদটি কেড়ে নিতে হয়৷ শিক্ষার দিক থেকে বিচার করলে বলব শিক্ষামন্ত্রীর পদটি কেড়ে নেওয়া উচিত৷ তিনি অন্য কোনও পদে থাকুন মন্ত্রী না-ই থাকুন৷ তিনি কোন পদে থাকবেন সেটি মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব মুখ্যমন্ত্রী বুঝবেন৷ কিন্তু শিক্ষক হিসাবে বলছি যিনি ফেল করে ডক্টরেট হয়েছেন সেই ব্যক্তির পদত্যাগ করা উচিত বা তার দায়িত্ব কেড়ে নেওয়া উচিত৷”

এই সাংবাদিক সম্মেলনে উঠে আসে টাকা লেনদেন প্রসঙ্গও৷ এই সাংবাদিক সম্মেলনে বেশ কিছু দাবি পেশ করা হয়৷ যে দাবিগুলির মধ্যে রয়েছে৷
১) ইসলামপুরে ঘটনার পূর্ণ সি বি আই তদন্ত করতে হবে৷ ২) ইসলামপুরে নিহতদের পরিবারবর্গকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে৷ ৩)দোষীদের চিহ্নিতকরণ ও উপযুক্ত শাস্তি৷ ৪)শিক্ষাঙ্গনে পুলিশ প্রবেশ ও বলপ্রয়োগ আগামীতে যাতে না হয় তার প্রতিশ্রুতি, ৫) অবিলম্বে প্রতিটি শূন্যপদ নিয়োগ এবং ৬)সাধারণ মানুষকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো অবিলম্বে বন্ধ করা

প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত এই সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয় ভয়ের রাজত্ব চলছে ও পরাধীনতার রাজত্ব চলছে এ রাজ্যে৷ এদিন জাতীয়তাবাদী যুব পরিষদের প্রতিবাদী সাংবাদিকদের তরফে জানান হয় তাঁরা রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করার সময় চাইবেন৷ দক্ষিণ দিনাজপুরে যাওয়ার প্রচেষ্টা করবেন তাঁরা৷ এই সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক সুমন ভট্টাচার্য, প্রাক্তন আইপিএস বানীপদ সাহা, দীপ্তিমান বসু,পৃথ্বীরাজ সেন প্রমুখ৷