স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রোজভ্যালি মামলায় প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে তলবের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে তলব করল ইডি৷ পরপর টলিউডের দুই টলিউডের সুপারস্টারকে ইডির নোটিশ পাঠানোয় টলিপাড়ায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷

বুধবার সকালে অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে নোটিশ পাঠায় ইডি৷সূত্রের খবর, রোজভ্যালি এবং তাঁর মধ্যে কোনও টাকার লেনদেন হয়েছিল কিনা, তা জানতেই তলব ঋতুপর্ণাকে। রোজভ্যালি এবং তাঁর মধ্যে কোনও চুক্তি হয়েছিল কিনা, তা নিয়েও জেরা হতে পারে। কয়েকদিন আগেই রোজভ্যালি কর্তাকে গৌতম কুণ্ডুকে জেরা করে অভিনেত্রী সম্পর্কে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতে আসে ইডির। তা জানতেই ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে তলব করা হয়েছে। আগামী সপ্তাহেই তাঁকে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে খবর।

গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার টলিউডের সুপারস্টার প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে তলব করেছিল ইডি৷ জানা গিয়েছে, তাঁকে আগামী ১৯ জুলাই দুপুর ১২ টার মধ্যে ইডি-র দফতরে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। এদিন সন্ধ্যায় প্রসেনজিৎ বলেন, “চিঠি তো আমাকে দেওয়া হয়নি। আমার কোম্পানিকে দেওয়া হয়েছে। আমি একজন দায়িত্বশীল নাগরিক। আমি ভারতবর্ষের সংবিধানকে সম্মান দিই। যেটুকু আমার করার দরকার, যেটা করলে নতুন ভারত তৈরি হবে, সেটা নিশ্চয়ই করব। এটা তো আমাদের ভারতবর্ষের নিয়মের বাইরে নয়। সেখানে তাঁরা যদি কোনও সহযোগিতা চান, ১০০ শতাংশ সহযোগিতা করব। কারণ, সহযোগিতা না করার মতো কিছু নেই”। উল্লেখ্য, রোজভ্যালি প্রোডাকশনের ব্যানারে তৈরি ‘মনের মানুষ’ ও ‘হ্যাংওভার’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়৷

পর্যবেক্ষকদের মতে, রোজভ্যালিকাণ্ডে রাজনীতিবিদদের পর এবার টলিপাড়ায় নজর পড়েছে ইডির৷ এই তালিকায় আর কোন কোন অভিনেতা-অভিনেত্রীরা আছেন সেটাই দেখার৷