নয়াদিল্লি: দুর্নীতির অভিযোগে এবার ইডির জালে লালু প্রসাদ যাদবের মেয়ে মিসা ভারতীর ফার্মহাউস৷ দিল্লির বিজ্বসান এলাকায় অবস্থিত এই ফার্মহাউসটি৷ মঙ্গলবার ইডি এই ফার্মহাউসটি পুরোপুরিভাবে সিল করে দিয়েছে৷

ইডির সূত্রে খবর, মিসা এবং তার স্বামী শৈলেশ ওই ফার্মহাউসটি ব্যবহার করত৷ কিন্তু সঠিক কোনও নথিপত্র ছিল না৷ গত ৮জুলাই দিল্লির ফার্মহাউসে ইডি অভিযান চালায়৷ সেই সময়ে এই ঘটনায় জড়িত মিসা ভারতীর স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ইডি৷

তবে, এই প্রথম নয়৷ এর আগেও লালু প্রসাদ যাদব এবং তার পরিবারের সদস্যরা পুলিশের জেরার মুখে পড়েছে৷ সারা রাজ্যে একাধিক বেনামী সম্পত্তির জন্য তাদেরকে বারবার অভিযুক্ত করা হয়েছে৷

আরও পড়ুন: লালু কন্যার বাড়িতে হানা ইডির

চলতি বছরে জুন মাসের শুরুতে আয়কর দফতর হানা দেয় রাজ্যসভার সাংসদ মিসা ভারতীর বাড়িতে৷ জমি সংক্রান্ত প্রায় ১হাজার কোটি টাকার আর্থিক তছরুপের দায়ে অভিযুক্ত করা হয় তাকে৷  মিসা ও তাঁর স্বামী সইলেশ কুমারের বিরুদ্ধে আর্থিক কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে৷ তার ভিত্তিতে আগেই হানা দেয় ইডি৷

প্রসঙ্গত, প্রাক্তন রেলমন্ত্রী লালু প্রসাদ যাদব ও তাঁর ছেলে তথা বিহারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী তেজপাল যাদবের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই৷ জমি কেলেঙ্কারি সংক্রান্ত এক মামলার ভিত্তিতে প্রাক্তন রেলমন্ত্রীর বাড়ি সহ বিহারের প্রায় ১২টি জায়গায় তল্লাসি চালানো হয়েছে৷ এবার লালুর মেয়ের বাড়িতে হানা দিলব কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইডি৷

ইডি সূত্রে খবর, প্রাক্তন রেলমন্ত্রীর মেয়ে মিসা ভারতী ও তাঁর স্বামীর নামে এক ফার্মহাউস আছে৷ তবে সেটি বেনামী সম্পত্তি৷ এর কোনও হিসেব নিকেশ আয়কর দফতরকে দেওয়া হয়নি৷ সেই কারণেই এই তল্লাশি চালানো হয়েছে ৷ যদিও এর আগেই পুরো বিষয়টি সাজানো ঘটনা বলে তীব্র সমালোচনা করেছে লালু কন্যা৷