কলকাতা: প্রভিডেন্ট ফান্ডের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার রমেশ সিংহ৷ তার বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে৷ এবার তার কলকাতার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল কেন্দ্রীয় আর্থিক তদন্তকারী সংস্থা৷ বাজেয়াপ্ত সম্পত্তি মূল্য প্রায় ৩ কোটি টাকা৷

সূত্রের খবর, মঙ্গলবার পিএফ কর্তা রমেশ সিংহ এর কলকাতার বাড়ি, গাড়ি মিলিয়ে প্রায় ৩ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি৷ অভিযোগ, পিএফ-র পার্ক স্ট্রিট অফিসে থাকাকালীন ৬-৭ কোটি টাকা ঘুষ নিয়েছেন অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার রমেশ সিংহ৷ সম্প্রতি তার বাড়িতে হানা দেয় কেন্দ্রীয় আর্থিক তদন্তকারী সংস্থা৷ তল্লাশিতে তাঁর বাড়ি থেকে পাওয়া গিয়েছে বহু নথি৷ সেই নথির ভিত্তিতেই এবার পিএফ কর্তার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল ইডি৷

এর আগে প্রাক্তম পিএফ কমিশনার রমেশ চন্দ্র সিংহের স্ত্রী সঙ্গীতা সিংহকে জেরা করে ইডি৷ সেই সময় তিনি নথিপত্র সহ ইডি দফতরে হাজিরা দেন৷ ইডি আধিকারিকরা তাকে দফায় দফায় জিঞ্জাসাবাদ করে৷

ইডি আধিকারিকদের চারটি দল রমেশ চন্দ্র সিংহের অফিস,বাড়ি ও ব্যাংকে হানা দিয়েছিল৷ সেই সময়ই তাঁর বাড়ি থেকে প্রায় দেড় কোটি নগদ টাকা উদ্ধার করে ইডি আধিকারিকরা৷ এছাড়াও তাঁর আয় বহির্ভূত সম্পত্তির হিসেব পাওয়া যায়৷

রমেশ চন্দ্র সিংহের নিজের নামে ও তাঁর আত্মীয়দের নামে ৬০টি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের হদিস পাওয়া যায়৷ যেখানে বেআইনিভাবে টাকা লেনদেনের প্রাথমিক প্রমাণ পায় ইডি আধিকারিকরা৷ তাই এই মামলায় রমেশ চন্দ্র সিংহের স্ত্রী সঙ্গীতা সিংহকে ইডি তলব করে ইডি৷ তাঁকে তাদের আয়-ব্যয় ও সম্পত্তি সহ বিভিন্ন নথিপত্র চেয়েছিল ইডি৷ এবার তারই ভিত্তিতে পিএফ কর্তা রমেশ সিংহ এর সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল কেন্দ্রীয় আর্থিক তদন্তকারী সংস্থা৷