নয়াদিল্লি: ইয়েস ব্যাংকের কাছ থেকে ডিএইচএফএল-কে ৩৭০০ কোটি টাকা ঋণ পেয়েছিল ৷ বিনিময়ে রাণা কাপুর ৬০০ কোটি টাকা ঘুষ অথবা ‘কিকব্যাক’ বলে নিয়েছিলেন- এমন অভিযোগে এফআইআর করেছে সিবিআই। পাশাপাশি প্রশ্ন উঠেছে অনিল অম্বানী গোষ্ঠীকে ১২ হাজার ৮০০ কোটি টাকা কিংবা সুভাষ চন্দ্রের এসেল গোষ্ঠীকে ৮৪০০ কোটি টাকা ঋণ দেওয়ার ক্ষেত্রে রাণা কাপুর কত ঘুষ নিয়েছিলেন৷ আর সেটা জানতেই তদন্তে নামছে ইডি-সিবিআই।

এই ব্যাংকের ১০টি বড় শিল্পগোষ্ঠীর অন্তত ৪৪টি সংস্থাকে দেওয়া ঋণ বর্তমানে ৩৪ হাজার কোটি টাকা অনাদায়ী ঋণে পরিণত হয়েছে। শোধ হওয়ার সম্ভাবনা নেই জেনেও ইয়েস ব্যাংক তা মঞ্জুর করেছিল। যা হয়েছিল ইয়েস ব্যাঙ্কের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, প্রাক্তন সিইও রাণার জমানায়।

ইডি-সিবিআই-এর তদন্তকারী অফিসারদের অভিমত, পরিশোধের ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও ব্যাংকে জমা আমজনতার সঞ্চয়ের টাকা এভাবে ঋণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন ব্যাংকস কর্তা রাণা। এই ঋণ মঞ্জুরের বিনিময়ে ঘুরপথে রাণার পকেটে কতটা অর্থ ঢুকেছে সেটারই তদন্ত হবে। যদিও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঘনিষ্ঠ তথা অনিল অম্বানী, সুভাষ চন্দ্রের মতো প্রভাবশালী শিল্পপতিদের সংস্থার বিরুদ্ধে এই তদন্ত আদৌ কতটা জোরদার হবে তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে বিরোধী শিবির।

অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র, প্রতারণা, ঘুষ দেওয়ার জন্য চাপ ইত্যাদি বেশ কিছু অভিযোগে এফআইআর দায়ের করেছে ১২ জন ব্যক্তি ও সংস্থা। সেই অভিযোগে নাম রয়েছে যেমন নাম রয়েছে রাণা কাপুর সহ তাঁর স্ত্রী ও তিন কন্যার তেমনই রয়েছে ডিএইচএফএল-এর মালিক কপিল ও ধীরজ ওয়াধওয়ান এবং তাদের নানা সংস্থার৷

এদিকে ইডি কর্তাদের সূত্রে জানা গিয়েছে, ইয়েস ব্যাংকের খাতায় ১০শিল্প গোষ্ঠীর ৪৪টি সংস্থার মোট ঋণ প্রায় ৩৪ হাজার কোটি টাকা। সন্দেহ করা হচ্ছে, মূলত এই ১০ শিল্প গোষ্ঠীর ৩৪ হাজার কোটি টাকার ঋণ শোধ না-হওয়াতেই ইয়েস ব্যাংক ডুবতে বসেছে। এই  শিল্প গোষ্ঠী এবং তাদের ঋণের অংক যথাক্রমে হল- অনিল অম্বানী গোষ্ঠী(১২ হাজার ৮০০ কোটি টাকা), এসেল গোষ্ঠী ( ৮৪০০ কোটি টাকা) ডিএইএচএফএল (৪৭৩৫ কোটি টাকা) আইএল অ্যান্ড এফএস ( ২৫০০ কোটি টাকা) জেট এয়ারওয়েজ(১১০০ কোটি টাকা ), কেরকার গোষ্ঠীর কক্স অ্যান্ড কিং ও গো ট্রাভেলস (১০০০ কোটি টাকা) ৷ এছাড়া ভারত ইনফ্রা, ম্যাকলয়েড রাসেল আসাম টি, এভারেডি-কে ১২৫০ কোটি টাকা এবং থাপার গোষ্ঠীর সি জি পাওয়ারকে ৫০০ কোটি টাকার ঋণ দিয়েছে ইয়েস ব্যাংক৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV