নয়াদিল্লি: ৪৯তম পুলিশ রিসার্চ ডেভেলপমেন্ট ব্যুরোর প্রতিষ্ঠা দিবসে দিল্লিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ও আইন এর গুরুত্ব নিয়ে বক্তব্য রাখলেন বুধবার। তাছাড়াও তিনি পুলিশের সার্বিক উন্নতি ও তাদের ট্রেনিংয়ের আধুনিকীকরন নিয়েও কথা বলেন। সেখানে তিনি জানান দেশ নিরাপদ না হলে অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব নয়।

তিনি তদন্তের ক্ষেত্রে বৈজ্ঞানিক প্রযুক্তি ব্যবহারের হয়েও মন্তব্য রাখেন এবং জানান,বর্তমান যুগ বিজ্ঞানের যুগ, এখন তদন্তের ক্ষেত্রেও প্রযুক্তির ব্যবহার করা উচিত। বলেন যে তিনি আমি প্রধানমন্ত্রী কে জানিয়েছি যে ‘ ন্যাশানাল মোডাস ওপারেন্ডি ব্যুরো’ কে অপরাধ এবং অপরাধীর মানসিকতা নিয়ে পড়াশোনার জন্য কর্মীদের সহায়তা করার জন্য৷

তিনি আরও জানান, মোদীর লক্ষ্য অনুযায়ী ৫ ট্রিলিয়ন অর্থনীতিতে দেশকে নিয়ে যেতে হলে দেশের ভেতরের এবং বাইরের সুরক্ষা ব্যবস্থাকে আরও জোরদার করতে হবে তবেই লক্ষ্যপূরন সম্ভব বলে জানান তিনি৷

এছাড়া তিনি আরও কিছু বিষয়ের উপর আলোকপাত করেছেন
১. প্রত্যেককে নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে পরিস্কারভাবে জানতে হবে। সমস্ত কর্মপদ্ধতিকে প্রাতিষ্ঠানিক হতে হবে।
২. বিপিআর এন্ড ডি কে অশেষ ধন্যবাদ, তিনি জানান যদি কোন প্রতিষ্ঠান ( সরকারি বা বেসরকারি) যদি ৫০ বছরের বেশী সময় ধরে চলে তাহলে বুঝতে হবে সব কিছুই ঠিকঠাক ভাবে চলছে আর বিপিআর এন্ড ডি কে সেই কারনে ধন্যবাদ জানাই।
৩. আজকের দিনে যখন মানুষ যখন রাজনীতি নিয়ে কথা বলে তখন তারা উন্নয়নমূলক কর্মসূচী নিয়েই কথা বলেন। তবে রাজ্য নিয়ে যখন কথাবার্তা হয় সেখানে কিন্তু আইন প্রধান গুরুত্ব পায়।

৪. প্রধানমন্ত্রী ৫ ট্রিলিয়ন অর্থনীতি বানানোর কথা বলেছেন এবং তিনি দেশকে প্রথম তিনের মধ্যে দেখতে চান। কিন্তু দেশের নিরাপত্তা ঠিক না হলে অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব নয় বলেও জানান তিনি।
৫.স্বাধীনতার পর সর্দার বল্লভভাই প্যাটেল দেশকে একটা নতুন দিশা দেখিয়েছিলেন তিনি মানবাধিকারের স্বার্থে পুলিশকে সাধারন মানুষকে রক্ষা করার জন্য নিয়োগ করেছিলেন।
৬. বর্তমান সময় হল যুগের সাথে তাল মেলানোর সময় আর এই সময় পুলিশ বিভাগকে আরও উন্নত হতে হবে আরও আধুনিক হতে হবে। প্রায় ৩৪০০০ পুলিশকর্মীরা নিজেদের প্রয়োজনীয় সময় দিয়ে দেশের সেবা করে চলেছে তাদের ধন্যবাদ দেন এবং উৎসাহ দেন।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব