কঙ্গো: করোনার পর এবার নতুন করে তৈরি হচ্ছে এবোলার ভয়। ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। নতুন করে এবোলা আউটব্রেকের কথা জানাল কঙ্গো প্রশাসন। সোমবারই প্রকাশ্যে এসেছে সেই তথ্য। ২০১৮ -তে এই এবোলা মহামারীর আকার ধারণ করে। এবার ফের কঙ্গোর এক শহরে ফের নতুন করে এবোলা ছড়াচ্ছে।

কঙ্গো নদীর ধারে মবাংডাকা নামে ওই শহরে বাণিজ্য হয় রাজধানী শহর কিনশাসার। আর সএই শহরেই ৬ জনের শরীরে এবোলা ধরা পড়েছে, যার মধ্যে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে উগান্ডার সীমান্তে এই মহামারীরে ২২০০ মানুষের মৃত্যু হয়। এবার সেখান থেকে ১০০০ কিলোকিটার দূরে ধরা পড়ল এবোলার।

এবোলা নদীর ধারে এই ভাইরাসের প্রথম আবির্ভাব হয় ১৯৭৬ সালে। এই নিয়ে ১১ তম আউটব্রেক হল কঙ্গোতে।

কঙ্গোর স্বাস্থ্যমন্ত্রী এতেনি লংগন্ডো বলেন, নতুন করে এবোলা আউটব্রেক হয়েছে। দ্রুত ভ্যাক্সিন ও ওষুধ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এবোলায় সাধারণত জ্বর হয়। একজনের স্পর্শ থেকে আর একজনের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে এই সংক্রমণ। প্রচণ্ড বমি ও ডায়েরিয়াও হয়।

কঙ্গোতে ২০১৭ থেকে এবোলা শুরু হয়। এছাড়া মিজলস মহামারীতেও ভুগতে হয় এই শহরকে। যাতে ৬০০০ মানুষের মৃত্যু হয়। আর সঙ্গে তো করোনা তো আছেই। ৭১ জনের মৃত্যু হয়েছে এখনও পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৬০০০ মানুষ।

এদিকে থেমে নেই করোনা সংক্রমণ। চিনকে জবাব দিতে হবে বললেও আমেরিকায় লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েই চলেছে মৃতের সংখ্যা। রবিবারের হিসেব বলছে আমেরিকায় নতুন করে ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ৫৯৮ জনের। জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির পরিসংখ্যান থেকে এই তথ্য মিলেছে।

নতুন করে মৃত্যু সংখ্যা বাড়ার জেরে মার্কিন মুলুকে মোট মৃত্যু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লক্ষ ৪ হাজার ৩৫৬ তে। দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ লক্ষ ৮৮ হাজার ৭৬২ জন।

অন্যদিকে ট্রাম্প ঘোষণা করেছেন যে WHO -র সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করছে আমেরিকা। সব ফান্ডিং বন্ধ করে ওই টাকা অন্য কোনও সংস্থাকে দেওয়া হবে। সংবাদসংস্থা রয়টার্স এই খবর প্রকাশ করেছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।