ক্রমেই দেশের মানুষের কাছে চাহিদা বাড়ছে ই স্কুটারের। আর সেই কথা মাথাতে রেখে একের পর এক কোম্পানি নিয়ে এসেছে একাধিক মডেলের স্কুটার। যা যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়েছে গ্রাহকদের কাছে। তবে এবারে জানা গিয়েছে এই সকল ই স্কুটার চার্জ দেওয়ার জন্য তৈরি করা হচ্ছে smart charging station। যার ফলে মনে করা হচ্ছে সুবিধা হবে সাধারণের।

জানা গিয়েছে ebikego নামের এক সংস্থা এই কজের জন্য এগিয়ে এসেছে। ই স্কুটার নিয়ে রাস্তাতে বের হলে চার্জ একটা সমস্যার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল। আর সেই থেকে রেহাই দেওয়ার জন্য এই সংস্থার তরফে এই রূপ ঘোষণা করা হয়েছে।

জানানো হয়েছে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে দেশের পাঁচটি জনপ্রিয় শহরে ৩ হাজারের কাছাকাছি smart charging stations তৈরি করবে । জানানো হয়েছে এই ষ্টেশন গুলি জনবসতি পূর্ণ এলাকাতে তৈরি করা হবে। যাতে সুবিধা হয় সাধারণের। এই ষ্টেশন গুলিতে ২ চাকার এবং ৩ চাকার গাড়ি চার্জ দেওয়া যাবে বলে জানানো হয়েছে।

জানানো হয়েছে এই ষ্টেশন গুলিতে থাকবে iot এর সুবিধা। internet of things এর সুবিধা। এছাড়া জানা গিয়েছে দ্রুত এই সংস্থা একটি app আনতে চলেছে।

এর সাহায্যে সব ধরনের তথ্য পেতে পারবেন সহজেই। পাশপাশি জানা গিয়েছে এই ষ্টেশন গুলিতে চার্জ হয়ে গেলে ইউজারেরা ডিজিটাল পেমেন্টের মাধ্যমে পে করতে পারবেন। আর খরচ খুব এটা বেশি হবে না বলেও জানানো হয়েছে। আগামীদিনে এই পদক্ষেপ যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।