স্টাফ রিপোর্টার,কলকাতা: পরের বছর মার্চ মাসের আগে চালু করা যাবে না ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো৷ জানালেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়৷ সোমবার তিনি শহরে এসে জানান, ডিসেম্বরের মধ্যে সমস্ত কাজ শেষ হয়ে যাবে ঠিকই কিন্তু তা পুরোমাত্রায় চালু হতে মার্চ মাস গড়াতে পারে৷

সোমবার সেক্টর ফাইভ থেকে ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রোর ট্রায়াল রান হয়৷ সেই সময় উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়৷ আসানসোলের সাংসদ এদিন মেট্রোয় চেপে বেশ কিছুটা পথ যান৷ পরে তিনি সাংবাদিকদের জানান, প্রথম পর্যায়ের কাজ প্রায় শেষের মুখে৷ ২০১৯ সালের মার্চ মাসের মধ্যে সেক্টর ফাইভ থেকে ফুলবাগান পর্যন্ত মেট্রো চলাচল শুরু হয়ে যাবে৷ এরপর দ্বিতীয় পর্যায়ে মেট্রো পাতালে প্রবেশ করে ফুলবাগান থেকে গঙ্গার তলা দিতে হাওড়ায় প্রবেশ করবে৷

২০০৯ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি শিলান্যাস করা হলেও এই প্রকল্পের নানা বিষয় নিয়ে প্রথম থেকেই জটিলতা চলছিল৷ জমি অধিগ্রহণের সমস্যাই ছিল প্রধান। শেষ পর্যন্ত হাইকোর্টের হস্তক্ষেপে তা মিটিয়ে প্রথম পর্যায়ের কাজ শেষ হতে চলেছে৷ দ্বিতীয় পর্যায়ে শিয়ালদহ থেকে হাওড়া ময়দান পর্যন্ত কাজেও ইতিমধ্যে নানা সমস্যায় রুট বদলানো হয়েছে। সময়সীমা মেনে এই প্রকল্পের কাজ শেষ করতে না পারায় খরচ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৫০০ কোটি টাকা। আবার শিয়ালদহ থেকে হাওড়া ময়দান পর্যন্ত রুট বদলানোর জন্য ৩০ শতাংশ বাড়তি খরচ হবে বলে জানানো হয়েছে।

বলা হয়েছিল, ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রথম পর্যায় সেক্টর ফাইভ থেকে ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন পর্যন্ত চলাচল করবে ২০১৮ সালের জুন মাসের মধ্যে৷ আর এই ফুলবাগান মেট্রো স্টেশনই হবে প্রথম পর্যায়ের ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো রেলের এক মাত্র ভূগর্ভস্থ মেট্রো রেল স্টেশন।