কলকাতা: ছয় বিদেশি চূড়ান্ত। ক্লাবের তরফ থেকে ঘোষণাও হয়ে গিয়েছে তাদের নামও। কয়েকজন চলেও এসেছেন এদেশে। সপ্তম বিদেশি হিসেবে আপফ্রন্টে আইরিশ অ্যান্থনি স্টোকস প্রায় চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে নাকি কোনও কারণে বেঁকে বসেছেন সেল্টিক, ব্ল্যাকবার্ন রোভার্সের প্রাক্তনী। তাই তড়িঘড়ি সপ্তম বিদেশি ঠিক করতে সোমবার রাতের দিকে কোচ রবি ফাওলারের সঙ্গে নাকি জুম কলে একপ্রস্থ আলোচনাও সেরেছেন ইনভেস্টর গোষ্ঠীর কর্তা-ব্যক্তিরা।

আবার কয়েকটি সূত্রে খবর স্টোকস নাকি এখনও পুরোপুরি ছিটকে যাননি। আদৌ এই আইরিশ স্ট্রাইকার আসন্ন আইএসএলে লাল-হলুদ জার্সি পরেন কীনা, সেজন্য আর কিছু সময় অপেক্ষা করতেই হবে। তবে এরইমধ্যে মঙ্গলবার দুপুরে তাদের ২২ সদস্যের দেশীয় ব্রিগেড ঘোষণা করে দিল স্পোর্টিং ক্লাব ইস্টবেঙ্গল। জেজে লালপেখলুয়া এবং বলবন্ত সিং’কে সামনে রাখেই অভিষেক মরশুমের দেশীয় স্কোয়াড ঘোষণা করল কলকাতা জায়ান্টরা। মরশুমের শুরুতে চুক্তিবদ্ধ হওয়া বেশ কিছু ফুটবলারকে বাইরে রেখেই ঘোষিত হল স্কোয়াড।

যার মধ্যে সিকে ভিনীথ, রিনো অ্যান্টো, বৈথাং হাওকিপ, মিলন সিং, গিরিক খোসলা, কেভিন লোবো, লাল রিনডিকা রালতে সহ ১৫ জন ফুটবলার রয়েছেন। রয়েছে ওমিদ সিং এবং হাইমে কোলাডোর নামও। এদের নাকি অন্য ক্লাব খুঁজতে বলা হয়েছে। রিনো অ্যান্টোকে ইতিমধ্যেই লোনে নিতে চলেছে গোকুলাম কেরালা এফসি। তবে বেশ কিছু ফুটবলারকে স্কোয়াডের বাইরে দেখে অবাক হয়েছেন সমর্থকেরা। যদিও কোচ এবং ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাচ্ছেন তারা।

একনজরে ইস্টবেঙ্গলের দেশীয় স্কোয়াড-

গোলরক্ষক: দেবজিত মজুমদার, মিরশাদ মিচু, শংকর রায়, রফিক আলি সর্দার

ডিফেন্ডার: গুরতেজ সিং, নারায়ণ দাস, সামাদ আলি মল্লিক, লালরাম চুলোভা, মহম্মদ ইরশাদ, রোহেন সিং, অভিষেক আম্বেকর, রানা ঘরামি

মিডফিল্ডার: শেহনাজ সিং, বিকাশ জাইরু, ইয়ামনাম গোপী সিং, ইউজেনসন লিংডো, আঙ্গৌসানা, মহম্মদ রফিক, লোকেন মিতেই, সুরচন্দ্র সিং

স্ট্রাইকার: জেজে লালপেখলুয়া, বলবন্ত সিং

দেশীয় ব্রিগেডের সঙ্গে অবশ্যই মেলবন্ধন ঘটবে স্কট নেভিল, ড্যানি ফক্স, অ্যান্থনি পিলকিংটন, মাত্তি স্টেইনম্যান, জ্যাকুয়েস ম্যাঘোমা এবং অ্যারন হলওয়ের। সঙ্গে থাকবেন সপ্তম বিদেশি।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I