কল্যাণী: আইলিগে যখন অশ্বমেধের ঘোড়ার মতো ছুটছে সবুজ-মেরুন, তখন বারবার হোঁচট খাচ্ছে লাল-হলুদ৷ আলেজান্দ্রো জামানার পর চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে জয় পেলেও নতুন স্প্যানিশ কোচ দলের সঙ্গে যোগ দিতেই ফের হারের মুখ দেখল ইস্টবেঙ্গল৷

শেষ পাঁচ ম্যাচে চারটিতে জয় পেয়েছে কিবু ভিকুনার মোহনবাগান। একটি ম্যাচ ড্র করেছে৷ আর সেখানে শেষ পাঁচ ম্যাচের মধ্যে মাত্র একটিতে জিতেছে লাল-হলুদ৷ শুক্রবার কোয়েম্বত্তুরে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে অ্যাওয়ে ম্যাচ জিতে জয়ের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেছে সবুজ-মেরুন৷ সেই সঙ্গে খেতাব জয়ের দৌড়ে আরও এক ধাপ এগিয়ে গিয়েছে গঙ্গাপাড়ের ক্লাব৷ ১০ ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শীর্ষে রয়েছে মোহনবাগান৷ আর ৯ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে ছ’ নম্বরে রয়েছে ইস্টবেঙ্গল৷

আলেজান্দ্রো জামানার পর এ নিয়ে দু’টি ম্যাচ খেলতে নামে ইস্টবেঙ্গল৷ বাস্তব রায়ের কোচিংয়ে প্রথম ম্যাচে জয় পেলেও এদিন স্প্যানিশ কোচ মারিও রিভেইরা দল সঙ্গে যোগ দিলেও ইন্ডিয়ান অ্যারোজের মতো অপেক্ষাকৃত দুর্বল দলের কাছেও হার হজম করল লাল-হলুদ৷ শনিবার কল্যাণীতে ০-১ গোলে ফেডারেশনের এই ডেভেলপমেন্ট দলের কাছে হারে ইস্টবেঙ্গল৷

এদিন সকালে কলকাতায় পা-রেখেই কাজে নেমে পড়বেন লাল-হলুদের নতুন স্প্যানিশ কোচ। বিমানবন্দর থেকে সরাসরি কল্যাণীতে ম্যাচে যোগ দেন মারিও৷ ফুটবলারদের সঙ্গে আলাপ পরিচয় সেরেই টিম নিয়ে মাঠে নেমে পড়বেন।

আই লিগের খেতাবি লড়াইয়ে এই ম্যাচ ছিল ইস্টবেঙ্গলের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই হারের পর আরও পিছিয়ে পড়ল লাল-হলুদ৷ আইলিগ-এর পয়েন্ট তালিকার ‘লাস্ট বয়’ ইন্ডিয়ান অ্যারোজ টানা তিন ম্যাচ হারলেও এদিন ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে জয় তুলে নেয়। লাল-হলুদ সমর্থকরাও আশা করেছিলেন, গত ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও জয় পাবে তাদের প্রিয় দল। কিন্তু ম্যাচ শেষ একরাশ হতাশা নিয়ে স্টেডিয়াম ছাড়েন তাঁরা৷

কোচ বদলালেও খুব একটা আশান্বিত দেখা যাচেছে না ইস্টবেঙ্গলের এই খেলা দেখে। এদিন একের পর এক গোলের সুযোগ নষ্ট করেন মার্কোসরা৷ ম্যাচের শেষ লগ্নে লাল-কার্ড দেখেও মাঠ ছাড়েন তিনি। নির্ধারিত সময়ে একাধিকবার গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেন ইস্টবেঙ্গল ফুটবলাররা। এছাড়াও বল রিসভিং এবং দুর্বল শট নেওয়া ক্ষেত্রেও লাল-হলুদ ফুটবলারদের জুড়ি মেলা ভার ছিল৷ জুয়ান মেরা, স্যান্টোস কোলাডোরা ডিফেন্স থেকে বল বাড়ালেও স্ট্রাইকারের অভাব অ্যারোজের বিরুদ্ধেও গোলের মুখ খুলতে পারেনি ইস্টবেঙ্গল৷

ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে প্রতি আক্রমণের ছক নিয়ে মাঠে নেমেছিল ইন্ডিয়ান অ্যারোজ। ৫৮ মিনিটে এগিয়ে বিক্রম সিং-এর গোলে এগিয়ে যায় তারা৷ কাউন্টার অ্যাটাকে উঠে এসে ঠান্ডা মাথায় গোল করে গেলেন অ্যারোজের বিক্রম সিং। এই গোলই নির্ধারণ করে দেয় এদিনের ম্যাচের ভাগ্য।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।